আসানসোল ইঞ্জিনিয়ার কলেজের স্ট্রং রুম ঘুরে দেখলেন বিজেপির প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পল ও কংগ্রেসের প্রার্থী প্রসেনজিৎ পুঁইতন্ডী

কাজল মিত্র :-গত মঙ্গলবার ছিলো আসানসোল ও বালিগঞ্জ উপ নির্বাচন যার মধ্যে অন্যতম আসানসোল।ছোটো খাটো কয়েকটি বিক্ষিপ্ত ঘটনা ঘটলেও ভোট হয়েছে শান্তিপূর্ণ। কয়েক মাস আগে থেকেই আসানসোল লোকসভা নির্বাচনে ঘিরে সাজো সাজো রব ছিল চোখে পড়ার মতো।তবে কয়েকটি বিক্ষিপ্ত ঘটনার ছাড়া টান টান উত্তেজনার মধ্যে দিয়ে১২ ই এপ্রিল মঙ্গলবার সম্পন্ন হল আসানসোল লোকসভা উপ নির্বাচন।
আর যার ফলাফল ঘোষণা হবে ১৬ ই এপ্রিল। এবারের লোকসভা নির্বাচনে মোট ভোটার ছিল ১৭ লক্ষ ৩৬ হাজার ৪৭৫ জন।তবে প্রচন্ড দাবদাহের মধ্যেদিয়েও ভোট পড়েছে প্রায় ৬৫.৬০ শতাংশ। ভোট শেষ হতেই সমস্ত ভোট কেন্দ্রের ইভিএম মেশিন পৌঁছে গেছে আসানসোল ইঞ্জিনিয়ার কলেজের স্ট্রং রুমে।তবে নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হয়েছে আসানসোল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে স্ট্রং রুম। অনেকেরই মতামত কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে। আবার কেও বলে কেন্দ্রীয় বাহিনী বলপূর্বক ভাবে মানুষের সাথে দুর্ব্যবহার করেছে।
বুধবার দিন ওই স্ট্রং রুম পরিদর্শন করেন কংগ্রেস প্রার্থী প্রসেনজিৎ পুইতন্ডি ও বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পল।
দুই প্রার্থী স্ট্রং রুম ঘুরে দেখার পর জানান সব কিছু ঠিকঠাক এখন পর্যন্ত রয়েছে। তবে পৌর নিগম নির্বাচনে যে ঘটনা ঘটেছিল সেই ঘটনা যেন না হয়। তিনি আরো বলেন, স্ট্রংরুম দেখতে এসেছিলাম কি অবস্থায় আছে, কেন না কর্পোরেশন ভোটের সময় রেগিং হয়েছিল দু’ঘণ্টা ধরে সিসিটিভি ক্যামেরা বন্ধ ছিল কি খেলা হয়েছে আমরা বুঝতেই পেরেছি যাতে সে রকম খেলা না হয় তার জন্য স্ট্রং রুম দেখতে এসেছি প্রতি ১ ঘণ্টা পরপর আমি আসবো সব ঠিকঠাক আছে কিনা দেখব যদিও এবার সেন্ট্রাল ফোর্স এর আয়ত্তে স্ট্রংরুম আছে আমার ছেলেরা এখানে বসে আছে ছেলেদের সাথে দেখা করতে এলে ওদেরও ভালো লাগবে

পাশাপাশি আসানসোল লোকসভার কংগ্রেস প্রার্থী প্রসেনজিৎ পুইতন্ডি জানান কমপ্লেন যা ছিল সেগুলো সব চেক করা চলছে। আমাদেরকে ডেকেছিল আমরা এসেছি আমরা কিছু কমপ্লেন করেছিলাম, যে বুথে কিছু অভিযোগ ছিল, সেখানকার প্রিসাইডিং অফিসার কে ডেকে সেগুলো চেক করা হচ্ছে। আশা করব সেন্ট্রাল বাহিনীর ঠিকঠাক নিজের দায়িত্ব পালন করেছে। আর যেটুকুই হয়েছে বুথ থেকে ২০০মিটার বাইরে তৃণমূলের গুণ্ডাবাহিনীর যে যা করার করেছে। তবে আসানসোলের মানুষ শান্তিপূর্ণভাবে স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট দিতে আসতে পেরেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *