নন্দকুমারের মাত্র দু’ বছরের শিশুর সফল লিভার প্রতিস্থাপন করে রক্ষাকর্তার ভূমিকায় কাবেরী হাসপাতাল

শহরে চালু হলো হাসপাতালের তথ্যকেন্দ্র

গোপাল দেবনাথ,

কলকাতা, ২১ এপ্রিল ২০২২: পূর্ব মেদিনীপুর জেলার নন্দকুমারের সুবর্ণ প্রামানিকের সন্তান শ্রেয়াংশ জন্মের পর প্রায়ই অসুস্থ থাকত। তার যখন বয়স দুই আচমকা খুব বমি হত শ্রেয়াংশের। সঙ্গে আরও বেশ কিছু উপসর্গ দেখা দেওয়ায় সুবর্ণ পুত্রকে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান। সেখানে সুফল না মেশার ফলে শ্রেয়াংশকে ব্যাঙ্গালুরুর এক বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান তাঁরা। এরপর শ্রেয়াংশকে চেন্নাইয়ের কাবেরী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তার লিভারের অসুখ নির্ণয় হয়। পরিস্থিতি জটিল বুঝে জরুরি ভিত্তিতে শ্রেয়াংশের লিভার ট্রান্সপ্লান্ট সার্জারি করা হয়। সুবর্ণ নিজেই ডোনার হন। মাত্র সাত দিন পর শ্রেয়াংশকে হাসপাতাল থেকে ছুটি দেওয়া হয়। এখন সে সম্পূর্ণ সুস্থ স্বাভাবিক।

সদ্য গত ১৯শে এপ্রিল আন্তর্জাতিক লিভার দিবস পালিত হয়েছে। আর এই কথা মনে রেখে কাবেরী হাসপাতাল সাংবাদিক সম্মেলনে আরও কিছু সাফল্যের খতিয়ান তুলে ধরেছে। কলকাতার এলা রায় (৬৩) ফ্যাটি লিভারের সমস্যায় ভুগছিলেন তার থেকে লিভার সিরোসিস হয়ে যায়। তিনিও সাফল্যের সঙ্গে লিভার প্রতিস্থাপন করে সুস্থ আছেন। চঞ্চল কুমার বসু (৫০) কলকাতার বাসিন্দা। তিনি ন্যাশ সংক্রান্ত লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত হন। কাবেরী হাসপাতালে তাঁর লিভার ট্রান্সপ্লান্টের পর তিনি এখন স্বাভাবিক জীবন যাপন করছেন।

এই ইতিবাচক অভিজ্ঞতার নিরীখে কাবেরী হাসপাতাল এবার তিলোত্তমার দোরগোড়ায় এসে পৌঁছেছে। বালিগঞ্জ সার্কুলার রোডে শুরু হয়েছে হাসপাতালের একটি তথ্যকেন্দ্র। তাভিলনাড়ুর মাল্টিস্পেশালিটি হাসপাতাল চেনের এই তথ্যকেন্দ্রে পর্যায়ক্রমে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ, চিকিৎসার বিষয়ে পথ নির্দেশ গ্রহন করতে পারবেন সাধারণ মানুষ।

সাংবাদিক সম্মেলনে বলতে গিয়ে প্রখ্যাত শল্যচিকিৎসক ডা: এলানকুমারন, প্রধান, লিভারের অসুখ ও প্রতিস্থাপন বিভাগ বলেন, “যে কোনো লিভার প্রতিস্থাপনই সফল হয় প্রি ও পোস্ট অপারেটিভ কেয়ারের জন্যই। সঠিক পরিকাঠামো অভিজ্ঞ চিকিৎসক ও দক্ষ চিকিৎসাকর্মীর সমন্বয়ে সাফল্যের দিক নির্দেশিত হয়। আমরা দেশের সেরা লিভার ট্রান্সপ্লান্ট টিম এবং দেশ জুড়ে অসংখ্য রোগীর সফল প্রতিস্থাপন করে চলেছি। পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গে ক্রমেই লিভারের অসুখের প্রকোপ বাড়ছে। তাই এই তথ্যকেন্দ্রের মাধ্যমে আমরা আশা করছি আরও অনেক মানুষকে সময়ে সঠিক চিকিৎসা পরিষেবা প্রদান করে নিরাময় লাভ করতে সহায়তা করতে পারব।”

হাসপাতালে রয়েছে কার্ডিওলজি, নেফ্রোলজি, অঙ্কোলজি, লিভার অসুখ ও ট্রান্সপ্লান্ট সহ অর্থোপেডিক ও স্পাইনাল কর্ড চিকিৎসার সেন্টার অফ এক্সেলেন্স বিভাগ। আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন চিকিৎসকদের সমন্বয়ে নিরাময়ের অভিযানে নিয়োজিত চিকিৎসক দল।

এই অবসরে ডা: আইয়াপ্পন পন্নুস্বামী, মেডিকেল ডিরেক্টর, কাবেরী হাসপাতাল, চেন্নাই জানান, “আমরা সেরা চিকিৎসা পরিষেবা স্বল্প খরচে ভারত জুড়ে প্রদান করে থাকি। আমাদের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা নিয়মিত এই তথ্যকেন্দ্রে এসে চিকিৎসা শিবির করবেন ও সেকেন্ড ওপিনিয়নও দেবেন। কলকাতার এই তথ্যকেন্দ্র পূর্ব ভারত তথা উত্তরপূর্ব ভারতের জনগনের সঙ্গে আমাদের বিশ্বমানের চিকিৎসা পরিষেবার পরিচয় ঘটাতে সহায়ক হবে।”

আন্তর্জাতিক মানের চিকিৎসা পরিষেবা প্রদানে কাবেরী হাসপাতাল অগ্রগন্য প্রতিষ্ঠান। বড় শহরের পাশাপাশি ছোট শহরেও উন্নত চিকিৎসা পরিষেবা আমরা প্রদান করে থাকি। কাবেরী হাসপাতাল বিশ্বের অন্যতম সেরা হাসপাতালের স্বীকৃতি লাভ করেছে নিউজউইক ম্যাাগাজিন কর্তৃক ২০২২-এ। বর্তমানের ছ’টি শহরে প্রতিষ্ঠানের ৮ হাসপাতাল সাফল্যের সঙ্গে চিকিৎসা পরিষেবা প্রদান করে চলেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *