শুভদীপ ঋজু মন্ডল বাঁকুড়া:–পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন বিষয়ক বিভাগ ও বাঁকুড়াজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জেলা পর্যায়ের অষ্টম বর্ষ বাঁকুড়া জেলা জঙ্গলমহল উৎসব শুরু হলো আজ সারেঙ্গা মিশন ময়দানে। প্রদীপ প্রজ্জলন ও ধামসা মাদল বাজিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন বাঁকুড়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি তথা রায়পুর বিধানসভার বিধায়ক মৃত্যুঞ্জয় মুর্মু তালডাংরা বিধানসভার বিধায়ক অরূপ চক্রবর্তী সহ উপস্থিত অতিথিবৃন্দ। উল্লেখ্য অনুষ্ঠান শুরুর আগে আদিবাসী প্রথায় অতিথিদের বরণ করা হয় এবং স্বাধীনতা সংগ্রামী সিধু ও কানুর মূর্তিতে মাল্যদান করেন অতিথিবৃন্দ। আজকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের গ্রামোন্নয়ন ও পঞ্চায়েত দপ্তরের প্রাক্তন মন্ত্রী শ্যামল সাঁতরা,বাঁকুড়া জেলার অতিরিক্ত জেলা শাসক অরিন্দম বিশ্বাস, খাতড়া মহকুমা শাসক মৈত্রী চক্রবর্তী ,খাতড়া মহকুমা পুলিশ আধিকারিক কাশিনাথ মিস্ত্রী, রায়পুর বিধানসভার প্রাক্তন বিধায়ক বীরেন্দ্রনাথ টুডু, বাঁকুড়া জেলা পরিষদের নারী ও শিশুকল্যাণ দপ্তরের কর্মাধ্যক্ষ বিভাবতী টুডু, সমাজসেবী গৌউর টুডু ,রায়পুর, সারেঙ্গা সিমলাপাল ,ও রানিবাঁধ এর বিডিও গন , রায়পুরপঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সুলেখা মাহাতো সারেঙ্গা পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি আলপনা লোহার ,সারেঙ্গা বনবিভাগের বন আধিকারিক সুরজিত কুমার মজুমদার, বিশিষ্ট সমাজসেবী তারাশংকর মহাপাত্র বিশিষ্ট সমাজসেবী সুব্রত মিশ্র, ছাড়াও জাতীয় শিক্ষক জগবন্ধু মাহাতো, বাঁকুড়া জেলা পরিষদের বিভিন্ন কর্মাধ্যক্ষ গন,সারেঙ্গা পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি শেখর রাউত,শিক্ষারত্ন প্রাপ্ত শিক্ষক সাধন কুমার মন্ডল, সারেঙ্গা থানার আইসি সুজিত ভট্টাচার্য সহ পুলিশ প্রশাসনের আধিকারিক বৃন্দ আদিবাসী সম্প্রদায়ের বিশিষ্ট মানুষজন ।এই উৎসবটি তিন দিন ধরে চলবে বলে জানালেন উদ্বোধক অরূপ চক্রবর্তী ।তিনি আরো বলেন উৎসব প্রাঙ্গণে ৩০ টিরও বেশি বিভিন্ন স্টল দেওয়া হয়েছে ।তার মধ্যে উল্লেক্ষ্য ক্রেতা সুরক্ষা, পুলিশ বিভাগ, বিদ্যুৎ বিভাগ ,কৃষি বিভাগ ,খাদ্য সরবরাহ দপ্তর , স্বাস্থ্য বিভাগ, সাইবার ক্রাইম সেল, বন বিভাগ,ইত্যাদি রয়েছে। সভাধিপতি তথা রায়পুর বিধানসভার বিধায়ক মৃত্যুঞ্জয় মুর্মু বলেন বিভিন্ন বিভাগে 32 টি দল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছে। ব্লক স্তরে প্রতিটি বিভাগের প্রথম স্থানাধিকারী দল টি জেলা পর্যায়ের এই উৎসবে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে খাতড়া মহকুমা শাসক মৈত্রী চক্রবর্তী আদিবাসী ভাষায় বক্তব্য রেখে উপস্থিত দর্শকদের মন জয় করে নেন। উপস্থিত অতিথিবৃন্দ তাদের বক্তব্যে জঙ্গলমহল উৎসব এর তাৎপর্য বিশ্লেষণ করি বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প গুলির কথা তুলে ধরেন এবং কোভিড বিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান। উল্লেখ্য উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে মেলায় আগত দের হাতেসারেঙ্গা থানার পুলিশ কর্মীরা স্যানিটাইজার ও মাস্ক তুলে দেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন বিশিষ্ট শিক্ষক সমাজসেবী অরুণ কুমার মান্ডি ও রায়পুর বিধানসভার বিধায়ক মৃত্যুঞ্জয় মুর্মু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *