রাজনীতি

গুসকারায় সংযুক্ত মোর্চার প্রচারে মীনাক্ষী মুখার্জি

জ্যোতিপ্রকাশ মুখার্জি,

আসন্ন বিধানসভা ভোটে আউসগ্রাম বিধানসভার কংগ্রেস, বামফ্রণ্ট ও আই.এস.এফ জোটের প্রার্থী চঞ্চল মাজির হয়ে গুসকরায় প্রচারে এলেন এবারের বিধানসভা ভোটে আলোড়ন সৃষ্টিকারী নন্দীগ্রামের জোট প্রার্থী তথা যুব ফেডারেশনের রাজ্য সভাপতি মীনাক্ষী মুখার্জ্জী। গুসকরা বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন মাঠে আয়োজিত এই নির্বাচনী জনসভায় তিনি তৃণমূল পরিচালিত রাজ্য সরকার ও বিজেপি পরিচালিত কেন্দ্রীয় সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন। কিভাবে গত দশ বছর ধরে তৃণমূল রাজ্যটাকে পেছিয়ে দিয়েছে একের পর এক উদাহরণ দিয়ে তা তিনি উপস্থিত জনগণের সামনে তুলে ধরেন। টেট কেলেঙ্কারি, প্রতি বছর এস.এস.সি না হওয়ার জন্য কিভাবে শিক্ষিত বেকার যুবক-যুবতীদের স্বপ্নভঙ্গ হচ্ছে তাও তিনি তুলে ধরেন। একইসঙ্গে তিনি বিজেপির বিভেদের রাজনীতি থেকে মানুষকে দূরে থাকতে পরামর্শ দেন। বিজেপি সম্পর্কে তিনি বলেন – নতুন কারখানা তৈরী না করে কেন্দ্রীয় সরকার একের পর এক সরকারি প্রতিষ্ঠান বিক্রি করে দিচ্ছে। তিনি বলেন – লড়াই হবে, তবে সেটা কাজের জন্য লড়াই , মহিলাদের নিরাপত্তার জন্য লড়াই, বন্ধ কলকারখানা খোলার লড়াই । তিনি দৃঢ় কণ্ঠে বলেন এবারের জোট ক্ষমতায় আসছে এবং এক বছরের মধ্যে সমস্ত সরকারি শূন্যপদ পূরণ করা হবে। এখানে কোনো সি.এ.এ বা এন.আর.সি হবেনা। তার জন্য জোট নেতৃত্বাধীন সরকার আইন তৈরী করবে। এর আগে চঞ্চল মাজির পক্ষে তিনি আউসগ্রামে আরও একটি জনসভা করেন। দুটি জায়গাতেই যথেষ্ট ভিড় হয়। অন্যত্র সভা থাকায় মীনাক্ষী দেবী গুসকরায় হাজির হওয়ার আগেই প্রার্থী চঞ্চল মাজি চলে যান।
তৃণমূলের তীব্র সমালোচনা করে কংগ্রেসের সুদীপ । তিনি আরও বলেন তোলাবাজ, কাটমানি খাওয়া , গণতন্ত্রের হত্যাকারী তৃণমূল সরকারের রাজত্বে বেকারদের চাকরির কোনো সুযোগ নাই। তিনিও সংযুক্ত মোর্চার সরকার গঠনের আশা প্রকাশ করেন।
আজকের সভায় উপস্থিত ছিলেন সিপিএমের জেলা কমিটির সদস্য আলমগীর মণ্ডল ও রবীন টুডু, প্রবীণ কংগ্রেস নেতা চঞ্চল মণ্ডল, সুদীপ মজুমদার প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *