পুলিশ

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রতিবন্ধী কিশোরীর সাথে সহবাস, পলাতক অভিযুক্ত

সুরজ প্রসাদ

এ এক অমানবিক প্রতারণা, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক প্রতিবন্ধী যুবতীর সঙ্গে সহবাস করে সম্পর্ক অস্বীকার করা এবং ভীতি- প্রদর্শনের অভিযোগ উঠল এক যুবকের নামে। ওই যুবকের নাম সমরেশ সামন্ত।বর্ধমান শহরের বিধানপল্লী ঘোষপাড়ায় এই অভিযোগ উঠেছে। মেয়ের বাড়ির পক্ষে বর্ধমান থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।মেয়েটি পুরোপুরি প্রতিবন্ধী।দুটো পা ই তার সম্পূর্ণ চলাচলের উপযোগী নয়। তার বাবা শহরে টোটো চালান। খুবই গরীব পরিবার।কোনো রকমে কষ্ট করে সংসার চলে। মেয়েটি ও তার পরিবারের অভিযোগ ; ওই যুবক আর মেয়েটির মধ্যে পাঁচ বছর আগে প্রেমেরে সম্পর্ক ছিল। তারপর কোনো কারণে তাদের মধ্যে সম্পর্কে ছেদ ঘটে।আবার লকডাউন চলাকালীন দুজনের যোগাযোগ হয়। অভিযোগ এইসময় বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে কয়েকবার মেয়েটির সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেন। তারপর মেয়েটি তাকে বিয়ের কথা বলে। অভিযোগ, তারপর থেকেই ছেলেটি তার বাড়ি আসা বন্ধ করে দেয়। এরমধ্যে একদিন মেয়েটির মা সম্পর্কের কথা জানতে পারেন। মেয়েটির পরিবার এবং প্রতিবেশীদের পক্ষ থেকে ছেলেটিকে বিয়ে করার জন্য অনুরোধ করে।ছেলেটির পরিবারের পক্ষ থেকে সমস্ত কিছু অস্বীকার করা হয়। অস্বীকার করা হয় বিয়ের প্রতিশ্রুতির কথাও। ক্লাব এবং স্থানীয় শাসকদলের সমর্থকেরাও বিষয়টি জেনেছেন। কারো অনুরোধেও কাজ হয়নি। উল্টে মেয়েটির পরিবারের বিরুদ্ধে ভয় দেখানোর অভিযোগ করা হয়। মেয়েটির পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।তারা চান ; হয় ছেলেটি মেয়েটিকে বিয়ে করুক।নতুবা ব্যাবস্থা নিক পুলিশ প্রশাসন। ছেলের পরিবার সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। ছেলেটি পলাতক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *