প্রশাসন

রোগী কল্যাণ সমিতির সদস্যর পদাধিকারে করোনা ভাক্সিন নিলেন বিধায়করা

সুরজ প্রসাদ,

সব সংশয় দূর করে পূর্ব বর্ধমান জেলায় সাতটি কেন্দ্রে চললো টিকাকরন। কিন্তু টিকা নিয়ে বিতর্কে জড়ালেন ভাতারের বিধায়ক। এদিন ভাতার স্টেট জেনারেল হসপিটালে স্বাস্থ্য কর্মীদের সাথে বিধায়ক সুভাষ মন্ডল ও প্রাক্তন বিধায়ক বনমালী হাজরা নেন কোভিড ভ্যাক্সিন। তাতেই জেলা জুরে শুরু হয়েগেছে বির্তক। টিকাকরণ বিতর্কে সাফাই দিলেন পূর্ব বর্ধমান জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক প্রণব রায় বলেেন; যে জনপ্রতিনিধিরা টিকা নিয়েছেন তারা রোগী কল্যাণ সমিতির সদস্য। তারা টিকা পেতেই পারেন। বর্তমান ও প্রাক্তন জনপ্রতিনিধিরা কোভিড ওয়ারিরর কী না বা তারা ভ্যাক্সিন পেতে পারেন কী না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেগেছে জেলায়। এই টিকাকরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভাতার বিধানসভার বর্তমান বিধায়ক সুভাষ মন্ডল,প্রাক্তন বিধায়ক বনমালী হাজরা, ভাতার থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ আধিকারিক প্রণব কুমার ব্যানার্জি ও ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক সংঘামিত্রা ভৌমিক, জেলা পরিষদের বিদ্যুতের কর্মাধ্যক্ষ জহর বাগদি সহ অন্যান্যরা। বিধায়ক সুভাষ মন্ডল জানান, আমি করোনার টিকা নিলাম আজ। কোন রকম অসুবিধা হয়নি ।সকল মানুষকে এই টিকা নেবার জন্য বলবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *