ক্রীড়া সংস্কৃতি

বীরভূমে বিবেক উৎসবে স্বেচ্ছায় রক্তদান শিবির

খায়রুল আনাম (সম্পাদক আয়না টেলি নিউজ )

 বিবেকানন্দ জয়ন্তীতে স্বেচ্ছা রক্তদান শিবির
       
করোনাকালে একটা সময় জেলা বীরভূমে স্বেচ্ছা রক্তদান শিবিরের সংখ্যা হ্রাস পাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে, জেলার ব্লাড ব্যাঙ্কগুলিতে রক্তের যে আকাল দেখা দিয়েছিল তা শুধু কাটিয়ে ওঠাই  নয়, এই মুহূর্তে বীরভূমের সরকারি হাসপাতালের  ব্লাড ব্যাঙ্কগুলিতে রক্তের কোনও ঘাটতি নেই বলে জানালেন  সিউড়ির  জেলা সদর হাসপাতালের সুপার ডা. শোভন দে। স্বামী বিবেকানন্দের ১৫৯ তম জন্মদিবস উপলক্ষে তিন দিনের জাতীয় যুব দিবস পালনের সানুষ্ঠান উদ্বোধনী অনুষ্ঠান এবং স্বেচ্ছা রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ১২ জানুয়ারি বোলপুরের গীতাঞ্জলি সংস্কৃতি অঙ্গনের শান্তিদেব ঘোষ সভাকক্ষে এদিনের  অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক   ডা. হিমাদ্রি আড়ি,  ওয়েস্ট বেঙ্গল  ভলান্টারি ব্লাড ডোনার্স ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অপূর্ব ঘোষ, রাজ্যের মৎস্যমন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিংহ, বিশিষ্ট শিক্ষক ড. সুপ্রিয় সাধু  প্রমুখ। এই রক্তদান শিবির উপলক্ষে পদযাত্রা এবং কর্মশালারও আয়োজন করা হয়।        এদিন জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডা. হিমাদ্রি আড়ি বলেন,  করোনা আবহে জেলায় স্বেচ্ছা রক্তদান শিবিরের সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে কমে যাওয়ার ফলে, ব্লাড ব্যাঙ্কগুলিতে রক্তের যে আকাল দেখা দিয়েছিলো, তা  কাটিয়ে ওঠার ফলে বর্তমানে জেলার ব্লাডব্যাঙ্কগুলিতে রক্তের কোনও ঘাটতি নেই।  একজন রক্তদান একবার রক্তদান করার পরে তিনি আর দ্বিতীয় বার রক্তদান করতে আসেন না। তিনি মনে করেন, তিনি আর রক্ত দিতে পারবেন না। অথচ একজন রক্তদাতা নির্দ্দিষ্ট সময় অন্তর রক্তদান করতে পারেন। এই বিষয়টি রক্তদাতাদের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়ার যথেষ্ট প্রয়োজন রয়েছে। মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিংহ বলেন, মুমূর্ষু রোগীদের দেহে প্রাণ ফিরিয়ে দিতে এই ধরনের  আরও স্বেচ্ছা রক্তদান শিবিরের  আয়োজন করার উপরে জোর দিতে হবে। এদিন উপস্থিত সকলে স্বামী বিবেকানন্দের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করে তাঁর প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ  নিবেদন করেন ।।  
 ছবি : অনুষ্ঠান মঞ্চ। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *