হাইকোর্ট সংবাদ

হাইকোর্টে মণীষ শুক্ল খুনের কেস ডাইরি তলব

মোল্লা জসিমউদ্দিন টিপু,


বুধবার দুপুরে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টি বি রাধাকৃষ্ণনের এজলাসে ব্যারাকপুরে বিজেপি নেতা মণীষ শুক্ল খুনের মামলায় শুনানি চলে। সেখানে মামলাকারীর পক্ষে নিহত বিজেপি নেতার বাবা কে এই মামলায় যুক্ত হওয়ার আবেদন জানানো হয়। তা প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ মামলায় যুক্ত হওয়ার আবেদন গ্রহণ করে অনুমতি দেয়।পাশাপাশি এই খুনের মামলায় তদন্তকারী সংস্থা সিআইডি কে পরবর্তী শুনানির আগে মামলার কেস ডাইরি এবং রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দেয় হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ।উল্লেখ্য, এই খুনের মামলায় সিবিআই তদন্ত চেয়ে মামলাটি চলছে কলকাতা হাইকোর্টে।গতবছর ৪ অক্টোবর  ব্যারাকপুরে টিটাগড় থানার সামনে আততায়ীদের গুলিতে নিহত হয়েছিলেন স্থানীয় বিজেপি  নেতা তথা আইনজীবী মনীশ  শুক্ল । এই খুনে নিহতের  বাবা ৭ জনের বিরুদ্ধে  এফআইআর দায়ের করেছিলেন। লিখিত অভিযোগপত্রে অভিযুক্তদের মধ্যে দুজন তৃনমূলের প্রাক্তন  পুর চেয়ারম্যান রয়েছেন । স্থানীয়  থানার  পুলিশ  অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ করেনি বলে নিহতদের পরিবারেরঅভিযোগ ৷ রাজ্য সরকার  অবশ্য  এই মামলার  তদন্ত সিআইডি কে দিয়েছে। যারা এই খুনের মামলায় ৮৭ দিনের মাথায় চার্জশিট দাখিল করেছে ব্যারাকপুর আদালতে। সিআইডির তরফে ১০জন কে গ্রেপ্তার  করা  হয়েছে। তবে প্রকৃত খুনিদের ধরতে তৎপর  নয় বলে নিহতের পরিবারের অভিযোগ। সম্প্রতি রাজ্য বিজেপি নেত্রী  তথা কলকাতা  হাইকোর্টের  আইনজীবী  প্রিয়াঙ্কা  টিবরেওয়েল মনীশ  শুক্ল  খুনের  মামলায়  সিবিআই   তদন্ত  চেয়ে মামলা করেছিলেন। এই আইনজীবীর যুক্তি  – ‘নিহত  মনীশ  শুক্ল  একজন  রাজনৈতিক  ব্যক্তিত্বের পাশাপাশি  আইনজীবীও ছিলেন। তাই একজন  আইনজীবী  খুনে প্রকৃত খুনিদের গ্রেপ্তার  হওয়াটা আবশ্যিক। ঠিক এই দাবিতে সিবিআই তদন্ত চেয়ে  মামলা’ । বুধবার কলকাতা হাইকোর্ট ব্যারাকপুরে নিহত বিজেপি নেতা মণীষ শুক্ল এর বাবা চন্দ্রমনি শুক্ল কে এই মামলায় যুক্ত করার অনুমতি দিল।তারই সাথে তদন্তকারী সংস্থা সিআইডির কাছে এই খুনের মামলায় কেস ডাইরি এবং রিপোর্ট তলব করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। পরবর্তী শুনানির আগে তা জমা দিতে হবে তদন্তকারী সংস্থা কে।

 107 12,89,834

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *