রাজনীতি

গলসির সাঁকো অঞ্চলে সিপিএমের জাঠা মিছিল

সেখ নিজাম আলম

সারা ভারত কৃষক সভার জাঠা মিছিল আজ পূর্ব বর্ধমান জেলার গলসী২ সারা ভারত কৃষক সভা ব্লক কমিটি সাঁকো অঞ্চলের বিভিন্ন গ্রামে জাঠা মিছিল করল। মিছিল থেকে দাবী উঠে ১) নয়া কৃষি আইন বাতিল করতে হবে, ২) নয়া বিদ্যুত আইন বাতিল করতে হবে, ৩) অবিলম্বে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস পত্রের দাম কমানোর ব্যবস্থা করতে হবে কেন্দ্র ও রাজ্য উভয় সরকারকে, ৪) কৃষককের ধান ফড়ে নয় সরাসরি সরকারকে সয়ায়ক মুল্যে কৃষকের খামার থেকে কিনতে হবে। ৫) বছরে ২০০ দিন কাজ ও দৈনিক ৬০০ টাকা মজুরী দিতে হবে এছাড়াও আরও বেশকিছু দাবিকে সামনে রেখেই গ্ৰাম থেকে গ্ৰামে জাঠা মিছিল সংগঠিত হলো। মিছিল শুরুর সময় দিল্লিতে নয়া কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবীতে যে কৃষক আনন্দোলন চলছে গত এক মাসের বেশি সময় ধরে, তাকে পূর্ণ সমর্থন জানানো হয় ও এই আনন্দোলন করতে গিয়ে যে সমস্ত কৃষক শহীদের মৃত্যু বরন করছেন, তাঁদের উদ্যেশে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়। আজ সাঁকো অঞ্চলের কৃষক জাঠা বড়মুড়িয়া থেকে শুরু হয় সকাল ৮ টার সময়। তারপর এই জাঠা মিছিল বিভিন্ন গ্রাম অতিক্রম করে কেটনা পৌঁছায়। তারপর সেখানে দুপুরের আহারের পর আবার বিকাল ২.৩০ থেকে এই জাঠা মিছিল শুরু হয়। জাঠা মিছিল শেষ হয় বাঁধাগাছিতে। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন গলসী২ ব্লক কমিটির সারা ভারত কৃষক সভার সম্পাদক সাইফুল হক ও সিপিআইএম এড়িয়া কমিটির অন্যতম সদস্য শিক্ষক অমিতাভ মন্ডল, কাজি কেকা, পুষ্প দি ও সিআইটিইউ গলসী ২ এর সদস্য নিখিল দত্ত । এছাড়াও হাঁটেন অসংখ্য কর্মী সমর্থক ও সংগঠক সহ সাধারন মানুষ। উল্লেখ্য বাদাগাছি গ্রামে ২০১১ এর পর থেকে ২০২০ পর্যন্ত তৃণমূলের অত্যাচারে cpim করা নিষিদ্ধ ছিল। আজ সেখানেই লালঝান্ডার মিছিল হল। মিছিলে সারাদিন এক গরীব মানুষ হাঁটেন। তিনি একজন প্রতিবন্ধী মানুষ।এস সি হওয়া সত্বেও শুধু cpim করার জন্যই তৃণমূলীরা তাঁকে আবাস যোজনার বাড়ি সহ প্রাপ্য কোন সুযোগ দেয় নি। তবু্ও তিনি লালঝান্ডা কে ভালবেসে জাঠায় হাঁটলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *