রাজনীতি

সোশাল মিডিয়ায় মমতার সরকার কে হেয় করার চেস্টা চলছে, দাবি মন্ত্রীর

সুরজ প্রসাদ,

বাংলার মহিলারা বিজেপিকে জবাব দেবে, বললেন স্বাস্থ্য মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্যাচার্য্য।
শনিবার পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূল মহিলা কংগ্রেসের উদ্যোগে জনসভার আয়োজন করা হয়।সভায় উপস্থিত ছিলেন
স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও রাজ্য মহিলা সভানেত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য্য।এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।
চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য বলেন,২০২১ সালের নির্বাচনের সময় সব বহিরাগত এসে শান্ত বাংলাকে অশান্ত করার চেষ্টা করছে ,লম্বা দাড়ি ও দশ লাখ টাকার স্যুট পড়লে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও অরবিন্দ হওয়া যায়না। তাইতো মঞ্চে উঠে কবির গানকে অসম্মান করেন।
এর বাইরেও বিজেপি সরকারকে নানানভাবে আক্রমণ করেন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্যাচার্য্য।
রাজ্যের সমস্ত প্রকল্পের নাম করে তিনি বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলার মানুষের জন্য যা কাজ করেছেন তার ধারে কাছে নেই মোদী সরকার। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে স্বাস্থ্য সাথী কার্ড করার পর কেন্দ্রীয় সরকার আয়ুষ্মান প্রকল্প চালু করেন।আসলে বাংলাকে কপি করেন।তিনি বলেন এখন টাকার থলি নিয়ে বিজেপি লোভ দেখাচ্ছে তাতে অনেকেই চলে যাচ্ছে। ওতে তৃণমূল কংগ্রেসের কিছু যায় আসে না।মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একাই কাফি। এখন সোস্যাল মিডিয়া ও টুইটারে মমতার সরকারকে হেয় করার চেষ্টা চলছে। বাংলার মানুষকে ওসব টুইট বা সোস্যাল মিডিয়া দিয়ে ভুল বোঝানো যাবে না।

এদিনের মঞ্চে ছিলেন হুগলি জেলার চন্দননগর পুলিশ কমিশনার হুমায়ুন কবিরের স্ত্রী অনিন্দিতা কবীর।তিনি এদিন কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *