পুলিশ

জিআরপির মানবিকতায় মেয়ে পেল তার নিখোঁজ বাবা কে

শ্যামল রায়,

দীর্ঘ ৫ বছর আগে  নিখোঁজ মাকে খুঁজে পেল ছেলে ও মেয়ে। অসুস্থ বাবাকে জিআরপি তুলে দেয় পরিবারের লোকজনদের হাতে।

পাঁচ বছর আগে নিখোঁজ বাবাকে জিআরপি উদ্ধার করে তুলে দিলো পরিবারের লোকজনদের হাতে জিআরপি। ঘটনাটি ঘটেছে নাদন ঘাট থানার ব্যান্ডেল কাটোয়া রেল শাখার সমুদ্রগড় রেলস্টেশন এর প্লাটফর্মে। নিখোঁজ বাবার নাম শেখ নিসারুদ্দীন ।বয়স৫৮। বাড়ি মুর্শিদাবাদ জেলার সহেলেনদি গ্রামের কান্দি  থানা এলাকায়। শনিবার নবদ্বীপ ধাম রেলওয়ে জিআরপি তরফ থেকে নিখোঁজ থাকা ওই অসুস্থ বৃদ্ধ বাবাকে তুলে দেয়া হয় মেয়ে আদিজা খাতুনের হাতে । শনিবার নবদ্বীপ ধাম রেলওয়ে স্টেশনের জিআরপি আধিকারিক প্রদ্যুৎ ঘোষ জানিয়েছেন যে দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে ওই বৃদ্ধ নিখোঁজ হয়েছিলেন বাড়ি থেকে। পরিবারের লোকজনদের রান দিল্লি বোম্বাই ব্যাঙ্গালোর প্রভৃতি এলাকা তন্ন তন্ন করে খুঁজে বাবাকে খুঁজে পায়নি পরিবারের লোকজনের। আর খুঁজে পাবেনা এরকম তাই আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন মেয়ে আদিজা খাতুন সহ  পরিবারের অন্যান্য লোক জনেরা। তাই দিনের পর দিন ক্রমশ হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছিলেন বিভিন্ন জায়গায় থানার তরফ থেকে এবং বাবার ছবি দিয়ে লিফলেট তৈরি করে সেটে দেয়া হয়েছিল বিভিন্ন রেলস্টেশন এবং গ্রামীণ এলাকায় তবুও বাবার খোঁজ পায়নি তারা। শুক্রবার রাতে ওই অসুস্থ বৃদ্ধ বাবাকে পড়ে থাকতে দেখেন জিআরপির লোকজনেরা নাদন ঘাট থানার ব্যান্ডেল কাটোয়া রেল সরকার সমুদ্রগড় রেল স্টেশনের প্লাটফর্মের। প্রদ্যুৎ ঘোষ জানিয়েছেন যে ওই অসুস্থ বৃদ্ধ কথা বলতে পারছিলেন না তখন আমরা প্রাথমিকভাবে যত্ন করে ওই বাবাকে কে খাবার দেয়া হয় এবং তারপর আস্তে আস্তে বাড়ির ঠিকানা বলতে থাকেন এবং কে আছেন তার ঠিকানা বলতে থাকেন এবং একটি শীত নিবারণে কম্বল আমরা ওই বাবাকে দিয়েছি। তারপর আমার বাড়ির তারপর আমার মত বাড়ির লোকজনকে খবর দেয়া হয় এবং দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় পরিবারের লোক জনেরা। ওই অসুস্থ বৃদ্ধা মহিলার মেয়ে আদিজা খাতুন তিনি তার লোকজনদের নিয়ে মাকে শনাক্ত করেন এবং আমরা তখন সরকারি নিয়ম অনুযায়ী সমস্ত কাগজপত্র তৈরি করে তুলে
দিয়েছি ওই বৃদ্ধকে। ঘটনা ঘিরে এলাকার মানুষের মধ্যে ব্যাপক ভাবে মানবিকতার পরিচয় দিয়েছেন জি আর পি  রেল পুলিশ এমনটাই মনে করছেন সকালে। দীর্ঘদিন ধরে নিখোঁজ থাকা ওই বৃদ্ধ কে পরিবারের লোকজনদের হাতে তুলে দিতে পেরে আনন্দিত জিআরপি আধিকারিক প্রদ্যুৎ ঘোষ। এইরকম মানবিকতার পরিচয় দিক দর্শন হয়ে রইল এলাকার মানুষের কাছে।

 127 12,89,834

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *