রাজনীতি

এই সরকার ফের ক্ষমতায় এলে মানুষের কিডনি পাচার শুরু হবে ; শুভেন্দু অধিকারী

মোল্লা জসিমউদ্দিন,

” যে কংগ্রেস থেকে বেড়িয়ে নুতন দল করেছিলেন মমতা, সেই কংগ্রেসেরই হাত ধরে ক্ষমতায় এসেছেন মমতা”, পাশাপাশি “১৯৯৮ সালের পঞ্চায়েত ভোট কিংবা ১৯৯৯ সালের লোকসভা ভোটে বিজেপির শরিক ছিল তৃণমূল” এইবিধ নানান আক্রমণাত্মক মেজাজে গেরুয়া শিবিরে জনসভায় পাওয়া গেল সদ্য তৃণমূল ত্যাগি রাজ্যের হেভিওয়েট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব শুভেন্দু অধিকারী মহাশয় কে। গত শনিবার মেদনিপুরের জনসভায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের কাছে গেরুয়া পতাকা নেওয়ার পর মঙ্গলবার বিকেলে পূর্ব বর্ধমান জেলার পূর্বস্থলীর ছাতনিতে জনসভায় বক্তব্য পেশে দেখা গেল শুভেন্দু অধিকারী কে। জনজোয়ারের মধ্য দিয়ে ‘পিঞ্চ হিটার’ ব্যাটসম্যানের মতন ‘নজরকাড়া’ ভাষণ দেন তিনি।একাধারে রাজ্যে পালাবদলে কংগ্রেসের ভূমিকা পাশাপাশি তৃণমূলের জন্মলগ্নে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের অবদান শুভেন্দু এদিন তুলে ধরেন পূর্বস্থলীর প্রকাশ্য জনসভায়। কে মীরজাফর, কেই বা বিশ্বাসঘাতক?  সাম্প্রতিক চলে থাকা  বিতর্কে শুভেন্দু এদিন জানান -” গত ২৭ নভেম্বর রাজ্য মন্ত্রীসভা থেকে ইস্তফা দিয়েছি, তারপর বিধায়ক পদ সর্বশেষ দলীয় প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে বিজেপি তে এসেছি।  কোন শর্ত না দিয়ে, এমএলএ টিকিট চাইনা, শুধু ‘ভাইপো  হঠাও’ চেয়েছি”। সারা রাজ্যে কয়লা – গরু পাচার বন্ধে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর প্রশংসা করে শুভেন্দু অধিকারী জানান – ” এই সরকার আগামীদিনে পুনরায় ক্ষমতায় এলে মানুষের কিডনি পাচার শুরু করে দেবে”। বালির গাড়িতে রাস্তায় রাস্তায় তোলাবাজি নিয়েও সরব তিনি।”যে কংগ্রেস নেতৃত্বের প্রতি অসন্তুষ্ট হয়ে ১৯৯৮ সালে তৃণমূল গড়েছিলেন মমতা। সেই কংগ্রেস ২০১১ সালে তৃণমূলের হাত না ধরলে ক্ষমতায় আসতে পারতেন না মমতা”। আবার ক্ষমতা দখলে নন্দীগ্রামের ভূমিকা তুলে ধরেন শুভেন্দু। “যদি এককভাবে ক্ষমতায় আসতেন মমতা, তাহলে ২০০১ সালেই আসতে পারতেন। নন্দীগ্রামের ১৪ জন লাশের উপর দাঁড়িয়ে ক্ষমতায় এসেছেন মমতা”। সিঙ্গুরের অনশন মঞ্চে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে ফলের রস খাইয়েছিলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা রাজনাথ সিং।পাশাপাশি নন্দীগ্রাম সহ গড়বেতার বিভিন্ন রাজনৈতিক ঘটনায় বিজেপির তৎকালীন নেতাদের অবদান তুলে ধরেন রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।উল্লেখ্য , পূর্ব বর্ধমান জেলারই একজন সাংসদ সহ দুজন বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে দলবদল করেছেন। আজকের জনসভায় সীমান্তবর্তী বিধায়ক( মন্তেশ্বর, কালনা)  হিসাবে তাঁরা রয়েছেন। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *