রাজনীতি

বর্ধমানের রায়ানে রাজনৈতিক মারপিট, আহত বেশ কয়েকজন

সুরজ প্রসাদ ,

তৃণমূল বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠলো পূর্ব বর্ধমানের রায়ান। দু’পক্ষের সংঘর্ষে দু’দলেই বেশ কয়েকজন জখম হয়। শুক্রবার রাতে দেওয়াল দখলকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় রায়ান ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের খাঁপুকুরের পূর্বপাড়ায়।

বিজেপির বুথ কমিটির সভাপতি সুরজিৎ হাজরা চৌধুরীর অভিযোগ তাঁরা কয়েকজন মিলে বসেছিলেন। হঠাৎই উপপ্রধান রিনু দের স্বামী দীপক দের নেতৃত্বে একদল তৃণমূল কর্মী সমর্থক তাদের উপর হামলা চালায়। তাকে মেরে মাটিতে ফেলে দেয়। তাঁর মাথা ফেটে যায়।কোনরকমে ছুটে পালিয়ে গিয়ে পাড়ার একটি বাড়িতে আশ্রয় নেয়।
অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ বিজেপি কর্মী সমর্থকরা অতর্কিতে আক্রমণ করে।রায়ান ১ নম্বর পঞ্চায়েতের উপপ্রধান রিনু দে বলেন তারা বাড়ির মালিকের কাছে অনুমতি নিয়েই দেওয়াল লেখার কাজ করছে।কিন্তু গতকাল হঠাৎই কয়েকজন বিজেপি কর্মী তৃণমূল কংগ্রেসের লেখা দেওয়াল মুছে বিজেপি লিখে দেয়।বাধা দিতে গেলে তারা হামলা করে।তৃণমূল কংগ্রেসের দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুরের পাশাপাশি উপপ্রধান রিনু দের বাড়িতেও হামলা করে।

বিজেপির অভিযোগ গতকাল থেকে তাদের সেবা সপ্তাহ শুরু হয়েছে। সেবা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে গতকাল রাতে সহনাগরিকদের মধ্যে কেক, বিস্কুট ও লজেন্স বিতরণ করা হচ্ছিলো সেই সময় তৃণমূলের পক্ষ থেকে অতর্কিতে তাদের উপর আক্রমণ করা হয়।ঘটনায় বুথ সভাপতি সহ তিনজন আহত হয় দাবী বিজেপি জেলা সাধারণ সম্পাদক শ্যামল রায়ের।

তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য মুখপাত্র দেবু টুডুর পাল্টা অভিযোগ আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের জন্য বেশ কয়েকটি দেওয়াল লিখন করা হয়। রাতের অন্ধকারে বিজেপি সেই দেওয়াল মুঝে দিয়ে বিজেপি লিখে দেয় প্রতিবাদ করলে বিজেপি বহিরাগত দুষ্কৃতি নিয়ে এসে তৃণমূল কর্মীদের উপর চড়াও হয় এমনকি উপপ্রধানের বাড়িতেও ভাঙচুর চালায় ।ঘটনায় বেশ কয়েকজন কর্মী আহত হয়। শনিবার রায়ানে যান বর্ধমান উত্তরের বিধায়ক নিশীথ মালিক। তিনি বলেন উন্নয়নে দিশেহারা বিজেপি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে গোটা বাংলায় উন্নয়নের কাজ চলছে।তাই বিজেপি রাতের অন্ধকারে হামলা করেছে। বর্ধমান থানায় শাসক বিরোধী দু’পক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে নালিশ জানায়।
এলাকায় উত্তেজনা থাকায় মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *