ক্রীড়া সংস্কৃতি

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সম্মানিত সাংবাদিক গোপাল দেবনাথ

সায়ন দেবনাথ ,

আমাদের প্রতিবেশী রাষ্ট্র বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী আজ থেকে ৫০ বছর আগে যার নেতৃত্বে বাংলাদেশের জনগণ স্বাধীনতার স্বাদ পেয়েছিলেন সেই মহান মানুষ হলেন জাতির পিতা বিশ্ববরেণ্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এই বরেণ্য মানুষ জন্মগ্রহণ করেছিলেন আজ থেকে ১০০ বছর আগে ১৭ই মার্চ ১৯২০ সালে বাংলাদেশের ফরিদপুর জেলার টুঙ্গিপাড়ায়। এই বছর তার জন্মশতবার্ষিকী এবং   বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ তম বিজয় দিবস।  বঙ্গবন্ধু মুজিবুর রহমান কে শ্রদ্ধা জানাতে বিশ্বের নানা প্রান্তে সাথে কলকাতার বাংলাদেশ হাইকমিশন ছাড়াও যে সকল সংস্থা শ্রদ্ধাজ্ঞাপনে উদ্যোগী হয়েছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম বাংলা শিল্পী সাহিত্যিক সমাজকর্মী সাংবাদিক সমন্বয় সমিতি এবং আম্বেদকর কালচারাল কলেজ এর সদস্য ও শুভানুধ্যায়ীবৃন্দ। বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন কে শ্রদ্ধা ও স্মরণ করে কলকাতার কৃষ্ণপদ ঘোষ মেমোরিয়াল ট্রাস্ট ভবনে এক বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিভিন্ন বক্তা তাদের বক্তব্যে শেখ মুজিবুর রহমান এর জীবনী, আদর্শ, ত্যাগ, ধর্মনিরপেক্ষতা, জাতীয়তাবাদ, দেশ গঠনে তার ভূমিকা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। বঙ্গবন্ধু র জীবন দর্শন নিয়ে  কথায় গানে আবৃত্তি, নৃত্য, জীবনী বিষয়ক আলোচনার মাধ্যমে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করা হলো। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মারক বক্তৃতার মাধ্যমে প্রনাম ও  শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ করেন দুই বাংলার বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্ট গুণীজন। ওই দিনের অনুষ্ঠানেই দুই বাংলায় সমান ভাবে জনপ্রিয় প্রতিভাধর গুণীজন অভিনেত্রী অভিনেতা  অভিনেতা, সমাজকর্মী, সাংবাদিক, শিক্ষাব্রতী, গায়ক, কলাকুশলী, সমাজ সংস্কারকদের অত্যন্ত বলিষ্ঠ ভূমিকা এবং তাদের অমর সৃষ্টিকে সমগ্ৰ বিশ্ববাসীর দরবারে পৌঁছে দিতে “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শতবর্ষ স্মৃতি স্মারক সন্মান – ২০২০” উপস্থিত গুণীজনদের সংস্থার পক্ষ থেকে তুলে দেওয়া হলো। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন ডাঃ কৌশিক রায়চৌধুরী। উদ্বোধনী সঙ্গীত পরিবেশন করেন মানস বিশ্বাস, রঞ্জিত চন্দ ও কৃষ্ণ বন্ধু ধর। প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন ব্রহ্মচারী মুরাল ভাই (সম্পাদক অদ্যাপীঠ) বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মেডিকেল ব্যাংক এর প্রতিষ্ঠাতা ডি. আশিস, জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত ডাঃ ভোলানাথ দাস, সমাজসেবী নূর মহম্মদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডঃ গোপাল ক্ষেত্ৰী, আম্বেদকর কালচারাল কলেজের সম্পাদক দিলীপ বিশ্বাস, দেবকন্যা সেন, ডাঃ প্রকাশ মল্লিক, চিন্ময়ী বিশ্বাস, বিজ্ঞানী ডঃ অরূপ মিত্র, উজ্জ্বল বিশ্বাস, নৌশাদ মল্লিক, সমাজসেবী অশোক ভট্টাচার্য, সুশীল চৌধুরী, কার্যকারী সভাপতি মিলন বসু, সংস্থার সম্পাদক ও আইনজীবী প্রদীপ বড়াল। এ ছাড়াও ছিলেন সীতানাথ গুঁই, সুশান্ত প্রসন্ন টিকাদার, কৃষ্ণ বন্ধু ধর, অরবিন্দ বসাক, ডাঃ মানবেন্দ্র ভৌমিক, বিমল মুখার্জী সহ বিশিষ্টজন। জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমান স্মারক বক্তৃতা প্রদান করেন আচার্য্য ডঃ গোপাল ক্ষেত্ৰী, দিলীপ বিশ্বাস, দেবকন্যা সেন ও সাংবাদিক নৌশাদ মল্লিক। নৃত্য, কথা, গান, কবিতা ও আবৃত্তি পাঠ এ অংশগ্রহণ করেন  লীলাবতী বিশ্বাস, মিলন বসু, ধীরু বন্দোপাধ্যায়, চিন্ময়ী বিশ্বাস, সম্মেলন বিশ্বাস, দিশা ভৌমিক, আশীষ বিশ্বাস, জয়া বসু সহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। ওই দিনের অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শতবর্ষ স্মৃতি স্মারক সন্মান – ২০২০ তুলে দেওয়া হয় ব্রহ্মচারী মুরালভাই, ডাঃ কৌশিক রায়চৌধুরী, ডঃ অরূপ মিত্র, ডি. কে, মামুন (চট্টগ্রাম), আইনজীবী আবদুস সামাদ, অধ্যাপক মহম্মদ নূর উদ্দিন (মানিকগঞ্জ), স্বপন ধর (ময়মনসিংহ) ডঃ চিন্ময়ী হালদার (ঢাকা), অজন্তা দেব বর্মন (ত্রিপুরা) দেবকন্যা সেন, অধ্যাপক মনীন্দ্র চন্দ্র পাল, দিলীপ বিশ্বাস, ডাঃ প্রকাশ মল্লিক, বিশিষ্ট সাংবাদিক এবং নিউজ স্টারডম অনলাইন নিউজ পোর্টাল এর প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক গোপাল দেবনাথ, প্রবীণ সাংবাদিক নৌশাদ মল্লিক, সাংবাদিক ও জাদুশিল্পী ইন্দ্রজিৎ আইচ, বিশিষ্ট আলোকচিত্রী বিজয় শেঠ, ভ্রমণ বিষয়ক লেখক সুজিৎ চক্রবর্তী, ফয়জুল রহমান (মাগুরা), বদ্রীবিক্রম থাপা, শ্রী গৌতম, আচার্য্য শ্রীজিৎ শাস্ত্রী, লীলাবতী বিশ্বাস, দীপ্তি ভট্টাচার্য সহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ। সমগ্ৰ অনুষ্ঠানটি সুচারুরূপে পরিচালনা করেন দিলীপ বিশ্বাস ও প্রদীপ বড়াল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *