ক্রীড়া সংস্কৃতি

ইলেকট্রিক শক খাওয়া ব্যক্তিকে নিয়ে সামাজিক কর্মসূচি পল্লিমঙ্গল সমিতির

সেখ সামসুদ্দিন ,

মাসখানেক আগে ৩৩০০০ ভোল্টের ইলেকট্রিক শক খেয়ে ভয়ংকর ভাবে আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিল অনিমেষ। বাড়ি ফেরে মাত্র কয়েকদিন আগে, এখন অনেকটাই সুস্থ। পল্লিমঙ্গল সমিতির সহায়তা শিবিরে যোগ দিলেন এক বস্ত্র বিতরণ ও খাদ্যশষ্য সামগ্রী (মুসুর ডাল) বিতরণ অনুষ্ঠানে। অনিমেষকে স্বাভাবিক জীবনে ফেরাতে তাকে কর্মসূচিতে ডাকা হয় বলে জানান পল্লীমঙ্গল সম্পাদক সন্দীপন সরকার। স্থানীয় ইঁট ভাটার শ্রমিকদের মধ্য এদিন শীতের জামা কাপড় বিলি করা হয়। দেখা গেছে তাদের অনেকেই অনেক সময় অপুষ্টির শিকার হয় প্রোটিনের অভাবে। সেই কারণে এদিন প্রত্যেক পরিবারকে ২ কেজি করে ডাল দেওয়া হয় পল্লীমঙ্গল সমিতির পক্ষ হতে। এই ইঁট ভাটার পরিবারগুলিকে দীর্ঘদিন ধরে নানান ভাবে যথাসাধ্য সাহায্য করে আসছে পল্লীমঙ্গল সমিতি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *