পুলিশ

জঙ্গি যোগে বীরভূমের পাইকরে ধৃত ১

খায়রুল আনাম,

 বাংলাদেশের জঙ্গি সংগঠন যোগে বীরভূম থেকে গ্রেফতার
         
 প্রতিবেশী বাংলাদেশের জঙ্গি সংগঠন বাংলাদেশ জামাতুল মুজহাদিন বা জেএমবি-র সাথে যোগসূত্রের অভিযোগে বীরভূমের পাইকর থানার কাশিমবাজার থেকে  শেখ  নাজিবুল্লাহ  নামে বছর পঞ্চাশেকের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ১০ ডিসেম্বর রাত্রে তাঁকে তাঁর বাড়ি থেকে পাইকর পুলিশ ও এসটিএফ যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে। তারপর রাত্রেই তাঁকে নিয়ে এসটিএফ আধিকারিকরা  কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। তাঁর বাড়ি থেকে  বেশ কিছু আপত্তিকর  বইপত্র উদ্ধার করা হয়েছে। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে  একাধিক  ইলেকট্রনিক ডিভাইস,  ল্যাপটপ ও কম্পিউটার। ধৃত শেখ নাজিবুল্লাহর একটি প্রিন্টিং প্রেসও রয়েছে।  সেখানে বিভিন্ন ধরনের আপত্তিকর বইপত্র ছাপিয়ে তা বিভিন্ন জায়গায় পাঠানো হতো বলে মনে করা হচ্ছে।      ধৃত শেখ  নাজিবুল্লাহ  সাকিব আলি নামে  ফেসবুক একাউন্টের মাধ্যমে যুবক-যুবতীদের   নানাভাবে প্ররোচিত করতো বলে  এসটিএফ জানতে পারে।   তারপর থেকেই এসটিএফ তাঁর উপরে নজর রাখতে শুরু করে। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে শেখ নাজিবুল্লা সাকিব আলি নামে যে জাল বিস্তার করে তাতে হাওলার মাধ্যমে তাঁর কাছে বাংলাদেশ থেকে টাকা আসতো বলেও জানা যায়। এমন কী সে বীরভূম থেকেও টাকা সংগ্রহ করতো বলে জানতে পারেন তদন্তকারীরা। সমস্ত দিক খতিয়ে দেখার পরেই এসটিএফ  পাইকর থানার পুলিশকে নিয়ে শেখ  নাজিবুল্লাহর বাড়িতে হানা দিয়ে তাঁকে গ্রেফতার করে। এই ঘটনার সূত্র ধরে রাত্রেই হুগলির  ডানকুনি থেকে  শেখ রেজাউল আলি  নামে আরও এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়। তাঁরি বাড়িও  বীরভূম জেলায়। ধৃত শেখ নাজিবুল্লাহ এবং শেখ রেজাউল আলির যোগসূত্রের বিষয়টিও খতিয়ে দেখতে শুরু করেছেন  এসটিএফ আধিকারিকরা ।। 
 ছবি : ধৃত শেখ নাজিবুল্লাহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *