রাজনীতি

বিজেপির বাহুবলীরা দুশো আসনের জন্য হুমকি দিচ্ছে, অভিযোগ দোলার

সুরজ প্রসাদ,

বাংলায় গত ১৯ সালের মত আগামী ২১ শে ভোট হলে শ্রমিকদের জেনে রাখতে হবে ;একবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হারিয়ে ফেললে গরিবের আর কোনো অধিকার থাকবেনা। এদিন বর্ধমানে শ্রমিক সমাবেশে বক্তব্য রাখতে গিয়ে একথা বলেন রাজ্যসভার সাংসদ দোলা সেন। তিনি বলেন এরাজ্যে মানুষের স্বার্থে অনেক প্রকল্প এনেছেন নেত্রী যা গোটা বিশ্বে নজির।তিনি আরো বলেন; ১৯ সালে আমরা ২২ টা আসন পেয়েছি।ওরা পেয়েছে ১৮ টা। ওরা হিসেব করে নিয়েছে প্রায় ১৫০ টার মত হয়। তাই ওদের বাহুবলীরা ২০০ আসনের হুঙ্কার দিচ্ছেন। তিনি বলেন; কেন্দ্রের বিজেপি সরকার নির্লজ্জের মত রাষ্ট্রের সব সম্পত্তি এমনকি অস্ত্র কারখানা বিক্রি করে দিচ্ছে।সব রাষ্ট্রায়ত্ত শিল্প বেচে দিচ্ছে। আজ শ্রমিক থেক কৃষক চরমভাবে বঞ্চিত।সেল থেকে ভেল বেচে দিচ্ছে। রেল থেকে বি এস এন এল বেচে দিচ্ছে। আজ শ্রমিক রাস্তায়। কৃষক রাস্তায়। অত্যাবশকীয় পণ্য আইন তুলে দিয়ে চাষী থেকে সাধারণ মানুষকে বিপদে ফেলেছে।বিজেপি ২০০ সিট পেয়ে রাজ্যে সরকারে এলে বিজেপি সরকার হয়ত হবে।কিন্তু বাংলার মা কে হারিয়ে ফেললে আর এমন মা পাবেন না। এদিন পূর্ব বর্ধমান জেলা আই এন টি টি ইউ সি র পক্ষ থেকে এই সমাবেশের ডাক দেওয়া হয়েছিল কেন্দ্রের বঞ্চনার বিরুদ্ধে। সমাবেশে মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ; সভাধিপতি শম্পা ধারা ; সহ-সভাধিপতি দেবু টুডু ; আয়োজক সংগঠনের জেলা সভাপতি ইফতিকার আহমেদ সহ একঝাঁক নেতা হাজির ছিলেন। উল্লেখ্য গত কয়েকদিন ধরে গোষ্ঠীকোন্দল মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে বর্ধমানে। পরস্পর তীব্র আক্রমণ থেকে মারামারি সব হচ্ছে। তাই সভার শেষে আগামী কয়েকদিনের দলীয় কর্মসূচি ঘোষণা করেন স্বপন দেবনাথ। একইসাথে হুঁশিয়ারি দেন সব কর্মসূচি একসাথে হবে। আলাদা আলাদা করা যাবে না।খেয়াল খুশি মতো প্রোগ্রাম ডাকা যাবেনা।তা বরদাস্ত করা হবেনা।দলের নির্দেশমতো ব্লক বা জেলায় একটিই কর্মসূচি হবে।জেলা সভাপতি হিসেবে স্বপন দেবনাথের পরিস্কার বার্তা; এই প্রোগ্রাম মমতা ব্যানার্জির প্রোগ্রাম।এতে কোনো বিঘ্ন ঘটানো যাবেনা।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *