রাজনীতি

দুয়ারে সরকার কর্মসূচি পালনে আউশগ্রাম বিধায়ক

জ্যোতিপ্রকাশ মুখার্জি,


রাজ্যে ক্ষমতা লাভ করার পর মমতা ব্যানার্জ্জীর প্রথম লক্ষ্য ছিল রাজ্যের সার্বিক উন্নতি করা। এই লক্ষ্যকে সামনে রেখে তিনি কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, ঐক্যশ্রী, খাদ্যসাথী, স্বাস্থ্যসাথী সহ প্রায় ডজনখানেক জনকল্যাণমূলক প্রকল্প চালু করেন। যোগ্য অথচ বঞ্চিত মানুষজন যাতে এই প্রকল্পের সুযোগ পায় তার জন্য গত ১ লা ডিসেম্বর থেকে রাজ্যের প্রতিটি পঞ্চায়েত ও পৌর এলাকায় ‘দুয়ারে সরকার’ নামে একটি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। পেছিয়ে নাই পূর্ব বর্ধমানের আউসগ্রাম ব্লক।
৭ ই ডিসেম্বর আউসগ্রাম-২ নং ব্লকের কোটা অঞ্চলের বলরামপুর বিদ্যালয়ে আয়োজিত হয় ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচি। সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের বিভিন্ন গ্রাম থেকে মানুষজন শিবিরে এসে হাজির হন এবং নির্দিষ্ট ফর্ম পূরণ করে জমা দেন।
সাধারণ মানুষ যাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জ্জীর স্বপ্নের প্রকল্প থেকে বঞ্চিত না হয় তার জন্য স্হানীয় বিধায়ক অভেদানন্দ থান্ডার নিজে উপস্থিত থেকে মানুষকে সাহায্য করেন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ সদস্য রামকৃষ্ণ ঘোষ, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সৈয়দ হায়দার আলি ও অঞ্চল সভাপতি সেখ আপেল। এই ধরণের শিবিরের আয়োজন করার জন্য এলাকার মানুষ খুব খুশি। অনেকের বক্তব্য ঠিকমত জানা না থাকার জন্য আমরা সরকার প্রবর্তিত সুযোগ সুবিধাগুলো থেকে বঞ্চিত ছিলাম। আশাকরি এবার সেগুলো পাব।
বিধায়ক বলেন – দলমত নির্বিশেষে প্রতিটি মানুষ যাতে এইসব সুবিধাগুলো পায় তার জন্য আমরা সতর্ক আছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *