পুলিশ

কবরে মাটি দেওয়ার আগে লাশ পরিবর্তন প্রকাশ্যে এল, চাঞ্চল্য গলসিতে

সেখ নিজাম আলম

গলসিতে লাশ পরিবর্তন গলসি থানার শিড়রায় গ্রামে ঘটল এক অদ্ভুত ঘটনা। এই গ্রামের পশ্চিম খাসপাড়ার বাসিন্দা সেখ রোম্মানের স্ত্রী আল্লাদি বিবি(৭০) শরীর খারাপ থাকায় বর্ধমান মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছিল। আজ সকালে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। মেডিকেল কলেজ থেকে মৃতদেহটি কে প্লাস্টিকের মোড়কে বেঁধে দিয়ে মৃতের পরিবারকে ফেরৎ দেন। তারা এ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করে ঐ লাশটিকে বাড়ী নিয়ে আসেন। তখন ঘড়িতে বাজে বেলা আড়াইটা। মৃতের খবর পেয়ে বহিরাগত থেকে আত্মীয়সজন তখন চলে এসেছেন। এবার মরদেহের মূখ দেখতে চাইলে,দেখা যায় অন্য মৃতদেহ। হৈ চৈ পড়ে যায় গ্রামের মধ্যে। একে তো লক ডাউন। তার উপর এই বিপদ। বিপদের উপর আরও বিপদ বেড়ে গেল। এদিকে মসজিদের মাইকে ঘোষনা করে দেওয়া হয়েছে,তৎপর মাটি দেওয়া হবে। সমস্ত পরিকল্পনা ব্যার্থ হয়। পূণরায় ঐ লাশটিকে পরিবর্তন করতে প্রস্তুতি নেওয়া হয় বর্ধমান হাসপাতাল যেতে। তড়িঘড়ি ঐ লাশটিকে নিয়ে যাওয়া হয় বর্ধমান হাসপাতালে। হাসপাতাল বিভাগও স্বীকার করেন,তাদের ভুল-ভ্রান্তির কথা। শেষমেশ লাশটিকে পরিবর্তন করে ৫টা নাগাদ বাড়ী নিয়ে আসা হয়। নিমেষের মধ্যে মসজিদে ঘোষণা করা হয়,এক্ষুণি মাটি দেওয়া হবে। সংক্ষিপ্ত সময়ে মরদেহের মূখখানি দেখেই তাকে কবরস্থ করা হয়। একদিকে হাসপাতালের গাফিলতি আর অন্যদিকে এই পরিবারের হয়রানিতে গ্রামের মানব ক্ষুব্ধ। নিরীহ মানুষের এমন ব্যাথায় কষ্ট পেয়েছেন শিড়রায় গ্রামের মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *