আমফানে নদীয়ায় ক্ষয়ক্ষতি ৭০০ কোটি

প্রশাসন

শ্যামল রায়

আমফান ঝড়ের জেরে নদীয়া জেলায় চাষের ক্ষতি ৭০০কোটি টাকা। মৃত ঘিরে এলাকায় চাঞ্চল্য

আমফানের জেরে নদীয়া জেলায় চাষের ক্ষতি হয়েছে ৭০০ কোটি টাকা। মৃত্যু হয়েছে সাত জনের। নদীয়া জেলার প্রশাসনিক সূত্রে জানা গিয়েছে যে অধিক বৃষ্টিতে বোরো ধান থেকে ফুল সবজি চাষ সবকিছুরই ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এছাড়াও ক্ষতি হয়েছে তিল কলা ভুট্টা কলা চাষে। গৃষ্ম কালীন চাষবাসের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। শুক্রবার আবহাওয়া কেটেছে রোদ্দুর বেরিয়েছে তবে এখন পর্যন্ত পাঁচ হাজার মানুষ সরিয়ে নিয়ে বিভিন্ন ত্রাণশিবিরে রাখা হয়েছে।
জেলাশাসক জানিয়েছেন যে চাকদা কল্যাণী হরিণঘাটা সহ শান্তিপুর রানাঘাট কৃষ্ণনগর ব্যাপক ঝড়ের প্রভাব পড়েছে বিভিন্ন জায়গায় প্রচুর গাছপালা ভেঙে গিয়েছে ঘরের চালা উড়ে গিয়েছে।
 নবদ্বীপ শহরের পরিচিতি মন্দির পোরামাতালা পোড়ামা মন্দিরের কয়েকশো বছরের প্রাচীন বটগাছ উপড়ে গিয়ে ভেঙে পড়ায় চরম সমস্যা তৈরি হয়েছিল দোকানদারদের মধ্যে দ্রুত সরিয়ে ফেলা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। গোটা নদীয়া জেলায় বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে মনে করা হচ্ছে শনিবার সকাল থেকে কিছুটা হলেও স্বাভাবিক হতে পারে বলে কাজ করে যাচ্ছেন বিদ্যুৎ দপ্তরের বিভিন্ন কর্মীরা।
রঞ্জন রায় চৌধুরী জানিয়েছেন যে চাষের ক্ষেত্রে নদীয়ায় ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে ধানের জমি জলে ভাসছে এছাড়া ভোটটা ডাল সবজি চাষে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে আমি লিচু কলা চাষীরাও ক্ষতির মুখে পড়েছেন ।
একদিকে লকডাউন অন্যদিকে আমফানের কারনে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে জেলা জুড়ে বিভিন্ন জায়গায়। শুক্রবার জানা গিয়েছে যে বিভিন্ন পৌরসভা পঞ্চায়েত থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.