কাটোয়া – ব্যান্ডেল রেলপথের ধারে পুকুর গুলিতে হচ্ছে মাছচাষ

প্রশাসন

শ্যামল রায়

;  কাটোয়া ব্যান্ডেল রেলপথে  ছোট-বড় যতসব জলাশয় আছে পূর্ব রেল থেকে টেন্ডার পেয়ে পুকুর পরিষ্কার শুরু করে দিল কর্তৃপক্ষ। রবিবার নবদ্বীপ ধাম রেল স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় বড়পিট জলাশয় টি পরিষ্কার করল শ্রমিকরা। বিমলা সাহা কর্তৃক পূর্ব রেল থেকে টেন্ডার পেয়ে এই কাজ শুরু করেছে বলে জানা গিয়েছে। জানা গিয়েছে,  খামারগাছি থেকে কাটোয়া পর্যন্ত ছোট বড় যত জলাশয় আছে আগামী পাঁচ বছরের জন্য পূর্ব রেলের কাছে টেন্ডার ভুক্ত হয়েছে । নবদ্বীপ ধাম রেল স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় বড় পিট জলাশয় টি দীর্ঘদিন ধরে জঞ্জাল এবং কচুরিপানায়  ভরে গিয়েছিল। পুকুরটি পরিষ্কার করায় এলাকাবাসী খুশি এবং জানিয়েছেন যে এর ফলে ডেঙ্গু রোগের প্রকোপ থেকে আমরা রক্ষা পাবো। এছাড়াও মাছ চাষে বহু মানুষের কর্মসংস্থান হবে এখানে। জলাশয় টি পরিষ্কার করে দ্রুত মাছ চাষের জন্য উপযুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। পূর্ব রেল থেকে টেন্ডারে লিজ  নিয়েই পরিষ্কার শুরু হয়ে গিয়েছে ওই সব পুকুরে। এর ফলে মশার উপদ্রব কমবে এবং বিভিন্ন ধরনের মশা বাহিত রোগের হাত থেকে রক্ষা পাবেন এলাকার মানুষ।এছাড়াও রেল স্টেশন চত্বরে বড় পিটের কাছে অর্থাৎ উত্তর দিকে আরেকটি জলাশয় রয়েছে কমপক্ষে দুই বিঘের উপরে। কচু গাছ এবং নানান ধরনের আগাছায় জলে ভরে গিয়েছে সেটিও পরিষ্কারের কাজ শুরু হবে। খুব তাড়াতাড়ি তাহলে মশা বাহিত রোগের হাত থেকে রক্ষা পাবেন এলাকার মানুষ এমনটাই জানা গিয়েছে। খামারগাছি থেকে কাটোয়া পর্যন্ত কমপক্ষে ছোট বড় জলাশয় সংখ্যা হবে ১৫ টির বেশি। পূর্ব রেল থেকে ওই সমস্ত জলাশয় লিজ নিয়ে মাছ চাষ হবে বলে জানা গেছে।   

Leave a Reply

Your email address will not be published.