রাতে নবদ্বীপ রেলস্টেশন যেন গরীবদের ভোজবাড়ি

পুলিশ

শ্যামল রায়


নবদ্বীপ ধাম রেল স্টেশন চত্বরে থাকা অসহায় ভবঘুরে গরিবদের মধ্যে রান্না করা খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে প্রতিদিন।
শনিবার আরপিএফ এর ইনেসপেক্টর আধিকারিক মিনা সাহেব জানালেন যে আমাদের তরফ থেকে রান্না করা খাবার প্রতিদিন স্টেশন চত্বরে থাকা ভিখারি অসহায়দের মধ্যে উন্নত মানের খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে। কখনো পনির সবজি ও পুরি এবং মাংস ভাত ডিম ভাত দেয়া হচ্ছে গরিবদের মধ্যে। প্রতিদিন রাত আটটা নাগাদ এলাকার অসহায়দের মধ্যে খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে। পরিবেশনের থাকছেন আর পি এফ এর কর্মচারীরা। আরও জানা গিয়েছে যে এই খাবার সকল আরপিএফ কর্মীরাও খাচ্ছেন।
এর ফলে গরিব দখিনা জানালেন যে আমরা সারা দিন শেষে রাতের খাবারটা তৃপ্তি সহকারে খেয়ে ভালো আছি। খাবার এতটাই ভাল যে বাড়িতেও আমরা কোনদিন খেতে পারিনা। প্রতিবন্ধী যুবক বিশু ব্যানার্জি জানালেন যে আমি সারাদিন খেতে পাই না রাত হলেই এখানকার খাবার খেতে ছুটে আসি। পেটপুরে তৃপ্তি সহকারে প্রতিদিন খাবার খাচ্ছি।
এই রাত্রিকালীন খাবারের আরো বৈশিষ্ট্য যে বহু শিশু খাবার খেতে আসছেন এই রেলস্টেশন চত্বরে রাতের খাবার খেতে। সুরেন্দ্র রাম অজয় কুমার এস কে সিং প্রমূখ জানালেন যে আমরা শুধু নিরাপত্তার দায়িত্বে আছি তা নয় আমরা সামাজিক মানুষ হিসাবে গরিব অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়ে প্রতিদিন রাতের খাবার তাদের মধ্যে পরিবেশন করে যাচ্ছি লকডাউন চলাকালীন আগামীতেও আমাদের এই ধরনের কাজ অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.