চারিদিকে মৃত্যুর বলি শ্রমিকরা, প্রতিবাদে সিটু

রাজনীতি

জুলফিকার আলি

সিঅাইটিইউ র ডাকে মহারাষ্ট্রের অওরাঙ্গাবাদে ১৬ জন পরিযায়ী শ্রমিকদের মালগাড়ী র চাকায় কেটে মৃত্যু, অন্ধ্রপ্রদেশের বিশাখাপত্তনম(ভাইজাগ)রাসায়নিক কারখানায় বিষাক্ত গ্যাস লিকে ১৩ জনের মৃত্যু ও প্রায় ৫০০০ জনের অসুস্থ হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদ সহ বিনা ব্যয়ে পরিযায়ী শ্রমিকদের কেন্দ্র ও রাজ্যসরকারের উদ্যোগে ফিরিয়ে অানা সহ শ্রমিকদের স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দাবীসমূহের ভিত্তিতে প্রতীকী কর্মসূচী রূপায়িত হয়। কাঁথি শহরের জুনপুট রাস্তার মোড়ে কর্মসূচীতে নেতৃত্ব দেন সিঅাইটিইউ জেলা নেতা হরপ্রসাদ ত্রিপাঠী, মামুদ হোসেন, কানাই মুখার্জি, মানিক জানা,সলিল বরণ মান্না, মধুসূদন জানা,সেক সাত্তার প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। দেশপ্রাণ ব্লকের চালতি তে নেতৃত্ব দেন সিঅাইটিইউ নেতা মামুদ হোসেন, সঞ্জিত দাস, সুতনু মাইতি, তাপস মিশ্র, সেক ইউনুস উদ্দিন, তরুণ মাইতি, অতসী দিন্ডা প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। মারিশদা র কর্মসূচী তে নেতৃত্ব দেন সিঅাইটিইউ নেতা কালীপদ শীট, হিমাংশু পণ্ডা, রাজনারায়ণ দাস, খাজা অাবুল হোসেন, অনন্ত পণ্ডা, অশোক পণ্ডা প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। হেঁড়িয়া র কর্মসূচী তে নেতৃত্ব দেন সিঅাইটিইউ নেতা গোকুল ঘোড়াই, বিশ্বজিৎ দাস,জাহারাজ অালি,সুমিত বারিক,অাশীষ দেবনাথ, দেব কুমার দাস প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। সিঅাইটিইউ নেতা মামুদ হোসেন বলেন বিদেশে অাটকে পড়া ধনী দের সরকারী উদ্যোগে প্লেনে ফিরিয়ে অানা হচ্ছে। অথচ রক্ত-ঘাম ঝরিয়ে সম্পদ সৃষ্টি কারী পরিযায়ী শ্রমিকরা বাড়ী ফেরার তাগিদে হাঁটতে হাঁটতে ক্লান্ত হয়ে রেললাইনে ঘুমিয়ে পড়লেন অার মালগাড়ী র চাকায় কেটে ১৬ জন পরিযায়ী শ্রমিক মৃত্যু বরন করলেন। প্রধানমন্ত্রী টুইট করে শোক প্রকাশ করে দায় সারতে চাইছেন। ঔরাঙ্গাবাদ মৃত্যু কাণ্ডে কেন্দ্রীয় সরকার দায়িত্ব এড়িয়ে যেতে পারেন না।শ্রমিক শ্রেণির ঐক্যবদ্ধ প্রতিবাদের অাহ্বান জানান মামুদ হোসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.