কল্যাণী বইমেলায় ক্যাএএ এর বিরুদ্ধে কবিতাপাঠ ফারুক আহমেদের

ক্রীড়া সংস্কৃতি

কল্যাণী বই উৎসব কমিটির সেমিনার হলে সুস্থভাবে বাঁচতে ক্যা বিরুদ্ধে কবিতা পাঠ করলেন কবি ফারুক আহমেদ

সংবাদদাতা, কল্যাণী:

সিভিক সেন্টার ময়দানে কল্যাণী বই উৎসবের আয়োজন করেছে কল্যাণী পৌরসভা, সহযোগিতায় কল্যাণী পাবলিক লাইব্রেরি, ভাবনা জন্ম সার্ধ-শতবর্ষে জাতির জনক গান্ধীজী।

কল্যাণী বই উৎসব কমিটির ডাকে সেমিনার হলে শনিবার সুস্থ সমাজ গড়ার অগ্নিশপথে এনআরসি-সিএএ-এনপিআর বাতিল করার আহ্বানে কবিতা পাঠ করলেন কবি ও উদার আকাশ পত্রিকার সম্পাদক ফারুক আহমেদ।

নদীয়া জেলার “কল্যাণী পৌরসভা”র উদ্যোগে এবং “কল্যাণী পাবলিক লাইব্রেরি”র সহযোগিতায় ৫ম বর্ষ “কল্যাণী বই উৎসবে”র দ্বিতীয় দিনে অর্থাৎ ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ “আন্তর্জাতিক বাংলা ভাষা সংস্কৃতি-সমিতি”র ব্যবস্থাপনায় ‘আলোচনা সভা ও চিত্র প্রদর্শনী কক্ষে’ এক কবিতা পাঠের আসর অনুষ্ঠিত হলো।

কবিতা পাঠ অনুষ্ঠানে কবিতা নিয়ে সংক্ষিপ্ত ও মূল্যবান বক্তব্য রাখেন স্বনামধন্য কবি প্রাণেশ সরকার, বিশিষ্ট কবি রামপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় এবং বর্ষীয়ান কবি সুখেন্দু বিকাশ মৈত্র।

এদিন কল্যাণী বই উৎসব কমিটির সেমিনার কক্ষে কবিতা পাঠ করে মুগ্ধ করলেন, কবি জালালউদ্দীন আহম্মেদ, অসিত মন্ডল, ড. সীমা রায়, পরিমল চন্দ্র মন্ডল, কুশল মৈত্র, নিলয় নন্দী, অরূপ বন্দ্যোপাধ্যায়, নৈঋতি বিশ্বাস, সুশান্ত ঘোষ, দেবজ্যোতি রায়, সোনালী ঘোষ, রনজয় মালাকার, সংঘমিত্রা মুখার্জি, মুকন্দ রায়, অভিমান্য পাল, স্বেয়তী বিশ্বাস, সোনালী ঘোষ, প্রসেনজিৎ রায়, অভিজিৎ সেন, মোনালিসা রেহমান, সোনালী রায়, হরিশঙ্কর কুন্ড, মেঘনাথ বিশ্বাস, প্রবীরঞ্জন মন্ডল, চন্দন সাহা, অর্ঘ্য মন্ডল, সায়ন্তনী হোড়, আবির গোস্বামী, রাজু শেখ, প্রতাপ হালদার সহ অনেকেই।

বিখ্যাত আবৃত্তিকারদের মধ্যে আবৃত্তি করেছেন সুস্মিতা সরকার ভট্টাচার্য, দুর্গা বেরা, স্বপন ভট্টাচার্য, সুজাতা দাস।

সমগ্র অনুষ্ঠানটি সুচারু সঞ্চালনা করেন “আন্তর্জাতিক বাংলা ভাষা সংস্কৃতি-সমিতি”র সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা ড. সীমা রায়।

এদিন কবিতা পাঠের আসর সার্বিকভাবে সফল হলো যার উদ্যোগে তিনি হলেন, আন্তর্জাতিক বাংলা ভাষা সংস্কৃতি-সমিতির দক্ষিণবঙ্গের সহ সভাপতি মুকন্দ রায়। মূলত তাঁর উদ্যোগেই এই কবিতা পাঠের অনুষ্ঠান সকলকেই প্রাণিত করেছে।

এদিন কবি ফারুক আহমেদ-এর হাতে সম্মাননা স্বরূপ মেমেন্টো তুলে দেন কল্যাণী বই উৎসব কমিটির সদস্য ও কল্যাণী পৌরসভার ১২ নং ওয়ার্ডের পৌরমাতা নিবেদিতা বসু।

কল্যাণী সংস্কৃতির শহর। সুস্থ সংস্কৃতি মননের স্বার্থে গত চার বছর ধরে কল্যাণী তথা সংলগ্ন অঞ্চলের বই ও সংস্কৃতি প্রেমী মানুষের মনের ক্ষুধা নিবারণ করতে কল্যাণী বই উৎসব এবছর সার্থকভাবে দাগ কাটলো।

৫ম তম কল্যাণী বই উৎসব শুরু হয়েছে ২৭ ডিসেম্বর। চলবে ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত। প্রতিবারের মত এবারও এই বই উৎসবে অন্যতম আকর্ষণ হিসেবে থাকছে লিটল ম্যাগাজিন প্যাভিলিয়ন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি থাকছে বিশেষ সেমিনার। সুস্থ ভাবে বেঁচে থাকতে হলে পরিবেশকে রক্ষা করতে হবে — এই বিষয়ে জনসচেতনতা মূলক অনুষ্ঠানও সকলের নজর কাড়ছে।

বই উৎসব উদ্বোধনের ঠিক পরেরদিন অর্থাৎ ২৮ ডিসেম্বর কবিতা পাঠের আয়োজন সকল সাংস্কৃতিক কর্মীদের মুগ্ধ করে।

এ-দিন কবিতা পাঠ করেন রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের স্বনামধন্য কবিরা।

কবিতা পাঠের পর প্রত্যেক কবিকে মেমেন্টো দিয়ে সম্মাননা প্রদান করা হয় কল্যাণী বই উৎসব কমিটির পক্ষ থেকে।

এদিন কবিতা পাঠ ও সম্মাননা প্রদান করার সময় ছবি তুলেছেন কবি সংঘমিত্রা মুখার্জি।

বেশি বেশি বই কিনে পড়ার আহ্বান জানিয়ে কল্যাণী বই উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছিলেন বাংলার উচ্চ শিক্ষামন্ত্রী ড. পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

২৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ শুক্রবার ভারতে নদীয়া জেলার কল্যাণীতে বই উৎসবের শুভ সূচনা করেছিলেন রাজ্য সরকারের উচ্চ শিক্ষামন্ত্রী ড. পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বনামধন্য কবি সুবোধ সরকার।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন
শঙ্কর সিং – নদীয়া জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি এবং বিধায়ক ও চেয়ারম্যান, পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটি, ড. রমেন্দ্রনাথ বিশ্বাস – কল্যাণীর বিধায়ক, নীলিমা নাগ মল্লিক – হরিণঘাটার বিধায়ক, গৌতম পাল – সহ-উপাচার্য, কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়, এস আর অনন্তনাগ – এস পি, রাণাঘাট পুলিশ জেলা প্রমুখ।

বই উৎসব ও বইমেলার আয়োজনের পাশাপাশি বই পড়ার গুরুত্বের কথা সুচারু ভাষায় মূল্যবান বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে তুলে ধরলেন ড. পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও কবি সুবোধ সরকার।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড. তাপস মণ্ডল – প্রাক্তন সাংসদ, রাণাঘাট লোকসভা।

উপস্থিত ছিলেন কল্যাণী বই উৎসবের আয়োজনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কারিগর কল্যাণী শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অরূপ মুখার্জী, সুশীল কুমার তালুকদার, সভাপতি কল্যাণী বই উৎসব কমিটি ও কল্যাণীর পৌরপ্রধান, নীলিমেশ রায় চৌধুরী-কল্যাণীর প্রাক্তন পৌরপ্রধান, ড. বিশ্বনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় ও সুব্রত চক্রবর্তী, যুগ্ম সম্পাদক কল্যাণী বই উৎসব কমিটি প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.