টিকটকের সেরা ৫ টি কনটেন্ট ক্যাটেগরির মধ্যে উঠে এসেছে খাদ্য

ক্রীড়া সংস্কৃতি

টিকটকের সেরা ৫টি কনটেন্ট ক্যাটেগরির মধ্যে উঠে এসেছে ‘খাদ্য’

গোপাল দেবনাথ

ছোট ফরম্যাটের ভিডিওর জন্য সারা পৃথিবীতে বিখ্যাত হয়ে উঠেছে টিকটক। নানা ধরনের কনটেন্টের জন্যও সুনাম রয়েছে টিকটকের। এবার টিকটকের সেরা ৫টি ভিডিও ক্যাটেগরির মধ্যে উঠে এল ‘খাবার’ অর্থাৎ খাবার সংক্রান্ত ভিডিও। এই সংক্রান্ত ভিডিও ৫০ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে। কুনাল কাপুর, রণবীর ব্রার, পূজা ধিংড়া, ভিকি রত্নানি -র মতো পেশাদার শেফরা টিকটকে যোগ দিয়েছেন এবং প্ল্যাটর্ফমের ২০ কোটি ইউজার কমিউনিটির সঙ্গে নিজেদের রান্নার গোপনকথা ভাগ করে নিচ্ছেন তাঁরা। সম্প্রতি টিকটক জোমাটোর সঙ্গে পার্টনার হিসেবে ভারতের অন্যতম জমকালো ফুড কার্নিভাল জোমাল্যান্ডে যোগ দিয়েছে যাতে দেশের সুস্বাদু ও বিচিত্র খাদ্যসম্ভারের সঙ্গে টিকটক ইউজারেরা আরও নিবিড়ভাবে পরিচিত হতে পারেন। ২৮ ও ২৯ ডিসেম্বর ক্যালকাটা বোটিং অ্যান্ড হোটেল রিসর্টসে অনুষ্ঠিত হয়েছে কলকাতা জোমাল্যান্ড।
টিকটকের ফুড ক্যাটেগরিতে সবচেয়ে জনপ্রিয় থিমগুলির মধ্যে রয়েছে রেসিপি, মাকবাং, রিভিউ, খাবারের ডিসপ্লে, রান্নাঘরের নানান কৌশল/টিপস। এই প্ল্যাটর্ফমের সাম্প্রতিক ক্যাম্পেন #টিকটকফুডি ইউজারদের কাছ থেকে প্রবল সাড়া পেয়েছে। প্রায় ৪৫ কোটি ভিউ হয়েছে এই ক্যাম্পেনটির, যা থেকে সহজেই বোঝা যায় ইউজারদের কাছে খাবার সংক্রান্ত ভিডিও কনটেন্ট কতটা জনপ্রিয়! ক্যাম্পেনের অংশ হিসেবে ইউজারেরা নিজেদের প্রিয় স্ন্যাকস রেসিপি সংক্রান্ত ইন-অ্যাপ পোলেও অংশ নিতে পারেন।

বাঁ দিক থেকে ডানদিকে: কুনাল কাপুর , রণবীর ব্রার, উল্লাস কামাতে এবং আম্মা কি থালিi নানা আকর্ষণীয় ফুড ভিডিও শেয়ার করেছেন টিকটক -এ
প্ল্যাটফর্মে যে সব অত্যন্ত জনপ্রিয় ফুড ক্রিয়েটরেরা সক্রিয়ভাবে অভিনব ও সৃজনশীল কনটেন্ট তৈরি করছেন, তাঁদের মধ্যে আছেন বিহারি বাবু (৩ লক্ষ, ৯ হাজার ফ্যান), বং ভুক্কড় (৪ লক্ষ ফ্যান), উল্লাস কামাতে (১০ লক্ষ ৬০ হাজার ফ্যান), আম্মা কি থালি (আট লক্ষ ফ্যান), কুকিংশুকিং (৬ লক্ষ ১৩ হাজার ফ্যান), সীতারাম চাহার (৬ লক্ষ ৩৯ হাজার ফ্যান), অভিনব জেসওয়ানি (৫ লক্ষ ৯২ হাজার ফ্যান), রুচিকা আসাতকার (৫ লক্ষ ১৬ হাজার ফ্যান), হোম কুকিং শো (চার লক্ষ ৩০০ ফ্যান), কবিতা’জ কিচেন (৩ লক্ষ ২০ হাজার ফ্যান)। ভারতীয় ইউজারেরা যে সব ফুড ভিডিও পোস্ট করছেন তা প্রশংসা কুড়োচ্ছে গ্লোবাল টিকটক কমিউনিটির কাছ থেকেও, থাইল্যান্ড, দুবাই, মার্কিং যুক্তরাষ্ট্র ও গ্রেট ব্রিটেনে অত্যন্ত ভালো সাড়া পেয়েছে এ সব ভিডিও।
শেফ কুনাল কাপুর বলেছেন, ‘‘কারিগরির সঙ্গে শিল্পকে মিলিয়েমিশিয়ে দেওয়ার সুযোগ করে দেয় খাবার এবং টিকটকই সে কাজ করার আদর্শ প্ল্যাটফর্ম, কারণ টিকটকের অন্তর্নিহিত প্রকৃতিই হল ইউজারদের শৈল্পিক ভাবপ্রকাশের স্বাধীনতা দেওয়া। মানুষ যে রেসিপি নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা করতে এগিয়ে আসছেন, যেভাবে তাঁরা এই প্ল্যাটফর্মে নতুন কিছু খুঁজে পাচ্ছেন, একজন শেফ হিসেবে আমার কাছে সেটা খুবই চিত্তাকর্ষক ব্যাপার। খাদ্যরসিক এই কমিউনিটির অংশ হতে পেরে আমি খুবই উত্তেজিত এবং আগামী দিনে আরও অনেক আকর্ষণীয় কনটেন্ট আমরা খুঁজে পাব বলে আশাবাদী।’’
অতীতেও টিকটক নানা ফুড ব্র্যান্ডের পার্টনার হিসেবে কাজ করেছে এবং আকর্ষণীয় ও চমকদার ক্যাম্পেন তৈরি করেছে যা ইউজার কমিউনিটির কাছে অত্যন্ত প্রশংসিত হয়েছে। এ বছরের গোড়ায় এই প্ল্যাটফর্মটি ফুড টিভির সঙ্গে পার্টনার হয়ে তৈরি করেছে #ফুডঅফইন্ডিয়া ক্যাম্পেন যা ইউজারদের সুস্বাদু ফুড কনটেন্ট তৈরি ও শেয়ার করে ইউজারদের ফুড ক্যাটেগরিতে জনপ্রিয় কনটেন্ট সৃষ্টিকারী হিসেবে বিখ্যাত হয়ে ওঠার উৎসাহ ও সুযোগ করে দিয়েছিল।

টিকটক-এ যোগ দিন এবং সৃজনশীল ইন-অ্যাপ ক্যাম্পেন ও উদ্যোগে অংশ নিয়ে নিজেও এই প্রাণচঞ্চল প্রতিভাবান সম্প্রদায়ের একজন হয়ে উঠুন।

টিকটক সম্পর্কিত তথ্য
টিকটক হল সংক্ষিপ্ত মোবাইল ভিডিও তৈরির অগ্রণী জায়গা। আমাদের লক্ষ্য সৃজনশীল অভিব্যক্তি প্রকাশের জায়গা করে দিয়ে এবং সেই সঙ্গে খাঁটি, আনন্দদায়ক ও ইতিবাচক অভিজ্ঞতা প্রদান করে মানুষের জীবনকে আরও অনুপ্রাণিত ও উন্নত করে তোলা। সারা পৃথিবীতে টিকটক-এর অফিস রয়েছে, তার মধ্যে রয়েছে লস এঞ্জেলেস, নিউ ইয়র্ক, লন্ডন, প্যারিস, বার্লিন, দুবাই, মুম্বাই, সিঙ্গাপুর, জাকার্তা, সিওল ও টোকিও। www.tiktok.com

Leave a Reply

Your email address will not be published.