বৃষ্টির সৃষ্টি – রাজা চৌধুরী

সাহিত্য বার্তা

বৃষ্টির সৃষ্টি

রাজা চৌধুরী

উঠোন জুড়ে তখন কিশোরীর প্রেমের মতো চঞ্চল বৃষ্টি —
অনির্ধারিত বৃষ্টির মিহি হীমে অমা- নিশির সাংঘর্ষিক প্রেম!
প্রকৃতিতে উথাল পাতাল তুমুল ক্ষরণ !
রাতের অন্ধকারের সাথে বৃষ্টির কী মধুর সঙ্গম !
টবে ফোটা রঙন গুচ্ছ কতটা হ্যাংলার মতো চেয়ে আছে স্নিগ্ধ প্রেমের দৃষ্টি নিয়ে !
যেন মুখোমুখি বসে থাকা ক্লান্তিহীন দুটি চোখ !
সুঠাম যুবক হেমন্ত প্রকৃতিকে আষ্টেপৃষ্ঠে আলিঙ্গণ করে চলেছে বৃষ্টির প্রতিটি ফোটায় !
যেন নষ্ট যুবক ভ্রষ্ট আঁধারে উষ্ণতা চায় ।
বিলাসী বাদল অন্দরে তুলেছে প্রাচুর্যময় মন্থন –
কৃষ্ণপক্ষের ইচ্ছের মেঘ যেন জোনাকির আলোয় স্নান করে প্রকৃতিকে করেছে আমন্ত্রণ।

ধূলোধোয়া সিক্ত প্রকৃতিকে সোহাগে জড়িয়ে ফিসফিসিয়ে বলছে– এইযে শুনছো ?একমুঠো শীতলতা নিতে এলাম তোমাদের এই মহকুমায়-
আমি ফিরে গিয়ে তোমার এই কাজল ধোয়া সুরমা দিয়ে নগরের প্রান্তে জলেভরা একটি নদী আঁকবো, পারিজাতের কমলাবোঁটায় আকঁবো রক্তিম সূর্য_
হেলঞ্চার ডগার মতো তোমাকে দেবো সজীবতা
অতঃপর এসো প্রিয়ে —
একটি সুনিশ্চিত স্নিগ্ধ সকালের আশায়
ঘুমসাঁতারে ডুব দিই!

Leave a Reply

Your email address will not be published.