ডায়মন্ডহারবারে বিস্ফোরণে ইঞ্জিনিয়ার সহ মৃত্যু ২ জনের

পুলিশ

ডায়মন্ডহারবারে বিস্ফোরণে মৃত্যু ২ জন,জখম ২ জন।

সৃজনশীল দক্ষিণ ২৪ পরগনা।

বিসর্জনের জন্য পারিবারিক বাজী তৈরি করার সময় হঠাৎই বিস্ফোরণ ঘটলে মৃত্যু হয় ২ জনের এবং জখম হয় ২ জন।মৃতদের নাম প্রভাত মন্ডল(৩২), পলাশ মন্ডল(২৭)।জখম বিদ্যুৎ মন্ডল ও প্রতাপ মন্ডল কলকাতা বাঙ্গুর হাসপাতালের চিকিৎসাধীন।ঘটনাটি ঘটে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ডায়মন্ডহারবার বিধানসভা কেন্দ্রের রামনগর থানার আশুরালি গ্রামে।স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে আশুরালি গ্রামের বাসিন্দা প্রভাত মন্ডল এবং তার ভাই পলাশ মন্ডল ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ার, প্রদ্যুৎ মন্ডল ও প্রতাপ মন্ডল গত ৮ অক্টোবর রাত প্রায় ৮ টার সময় বিসর্জনের জন্য বাজী তৈরি করছিল পড়ে থাকা একটা ক্লাব ঘরে।এই ঘরটি একটা সময় ক্লাব ঘর ছিল।বর্তমানে ক্লাব ঘরটি এখন পড়ো বাড়ি হিসাবে পড়ে আছে।আর এই পড়ো বাড়িতে বিসর্জনের জন্য পারিবারিক বাজী তৈরি করছিল তারা।বাজী তৈরি করার সময় হঠাৎই বিস্ফোরণ ঘটে।বিস্ফোরণের আগুনে ঝলসে যায় ৪ জন।এদিকে বিস্ফোরণের শব্দে স্থানীয় মানুষজন ছুটে আসে।জখমদের উদ্ধার করে কলকাতা বাঙ্গুর হাসপাতালে নিয়ে যায় তারা।সেখানে গভীর রাতে চিকিৎসকরা ২ জনকে মৃত বলে ঘোষণা করে।বাকী ২ জন চিকিৎসাধীন।এদিকে মৃত্যু খবর ছড়িয়ে পড়তে এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া।মৃত প্রভাত মন্ডল ও পলাশ মন্ডলের পরিবারের সদস্যরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে।এদিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে বিশাল পুলিশ বাহিনী।এবিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।ডায়মন্ডহারবার-২ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অরুময় গায়েন বলেন আশুরালি গ্রামে একটি পড়ো ক্লাব ঘরে বিসর্জনের জন্য পারিবারিক বাজী তৈরি করার সময় হঠাৎই বিস্ফোরণ ঘটলে একই পরিবারের দুই ভাইয়ের মৃত্যু হয়।এদের মধ্যে এত ভাই বিদ্যুৎ ভবনে চাকুরী করে এবং এক ভাই ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ার।জখম আরও ২ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।যে কোন মৃত্যু খুবই দুঃখজনক, বেদনাদায়ক।তবে আমার আবেদন জীবন বাজি রেখে আনন্দ করার জন্য কেউ যেন এই ভাবে বাজী না করে।মৃতের পরিবারের সদস্যদের পাশে থেকে সব ধরনের সুযোগ সুবিধা পায় সেটি দেখা হচ্ছে।পুলিশ জানান বিসর্জনের ও পারিবারিক বাজী তৈরি করতে গিয়ে হঠাৎই বিস্ফোরণ ঘটলে ২ জনের মৃত্যু হয় এবং জখম হয় ২ জন।জখমরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.