মঙ্গলকোটে দশমীতে সাঁওতাল নাচ

ক্রীড়া সংস্কৃতি

জ্যোতিপ্রকাশ মুখার্জি


এবছরের মত দশমীর সূর্য শেষ বারের মত ধীরে ধীরে ঢলে পড়ছে পশ্চিমাকাশে।মণ্ডপে মণ্ডপে উচ্চৈস্বরে মাইকে বেজে চলেছে বাংলা বা হিন্দি গান।সঙ্গে উদ্দাম নৃত্য। ঠিক তখনই বিপরীত চিত্র ধরা পড়ল পশ্চিম মঙ্গলকোটের গণপুর গ্রামে ভট্টাচার্য বাড়ির পুজো মণ্ডপে।গ্রামের দশাদীঘি মাঝি পাড়ার ছেলেমেয়েরা তাদের ঐতিহ্যবাহী সাঁওতালি নৃত্যের পসরা নিয়ে হাজির হল পুজো মণ্ডপে। প্রবীণ থেকে নবীন প্রজন্মের প্রতিনিধিরা প্রায় ২ ঘণ্টা ধরে উপভোগ করল কবিতা,ববিতা, পরিদের নৃত্যশৈলী। নাচে মুগ্ধ হয়ে মাদলের তালে তালে ওদের সঙ্গে পা-মেলালো ভট্টাচার্য বাড়ির মেয়েরাও।
সাঁওতালি নৃত্যের মূল উদ্যোক্তা কাকা-ভাইপো রামশঙ্কর ভট্টাচার্য ও বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য। বিশ্বজিৎ বললেন – আকাশে প্রচণ্ড মেঘ।বৃষ্টি পড়ছে। মনের মধ্যে আশঙ্কা ছিল মানুষ সাঁওতালি নাচ গ্রহণ করবে তো? কিন্তু বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে নবীন প্রজন্ম যেভাবে অংশগ্রহণকারীদের উৎসাহ দিল সেটা ছিল কল্পনার বাইরে। অন্যদিকে নবীন প্রজন্মের প্রতিনিধি রাজু, তাপু, পিঙ্কিরা সাঁওতালি নাচ দেখে খুব খুশি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.