শ্রীখন্ডের রায় পরিবারের দুর্গাপূজা

ক্রীড়া সংস্কৃতি

পুলকেশ ভট্টাচার্য

পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়া শহর সংলগ্ন  শ্রীখন্ডে শতাব্দী প্রাচীন রায় পরিবারের দূর্গা পূজা। এখানে দেবী পূজিত হন সিংহবাহিনী রূপে। শ্রীখন্ডের রায় পরিবার সারা বছরই নিত্য সেবার আয়োজন করে থাকে। এখানে অধিষ্ঠাত্রী দেবীর বিগ্রহ  অষ্টধাতুতে নির্মিত। মহাসপ্তমীর সকালে নবপত্রিকা স্নানের পর দেবীকে পূর্ণাঙ্গ সাজ পরিয়ে নিত্য সেবার ঘর থেকে দূর্গোৎসবের ঘরে নিয়ে আসা হয়। সেবাইতদের ভাষায় একে বলা হয় ‘যাত্রা’। এরপর সমস্ত নিয়ম কানুন মেনে মাতৃ আরাধনা শুরু হয়। একে একে সপ্তমী, অষ্টমী, নবমীর দিনগুলি কাটতেই বিজয়া দশমীতে দেবী আবার নিত‍্য পুজোর কক্ষে প্রত্যাবর্তন করেন। এখানে পরিবারের সদস্য/সদস‍্যারা মহাষ্টমীর সন্ধিক্ষণে একশো আট পদ্ম নিবেদন করেন মা সিংহবাহিনীর চরনে। এছাড়াও নবমীর দিন বিশেষ হোম ও স্তব পাঠ আয়োজিত হয় ঠাকুর দালানে। বিজয়া দশমীতে পরিবারের সকলে মিলে ভুতনাথ মন্দির দর্শনের রেওয়াজ আজও চলে আসছে। এরপরই সকলে মিলে নাট মন্দিরে অনুষ্ঠিত হয় বিজয়ার প্রীতি ও শুভেচ্ছা বিনিময়। এইভাবেই শুরুর সময় থেকে আজ অবধি সাবেকিয়ানাকে বজায় রেখে মা দূর্গা পূজিত হন শ্রীখন্ডের রায় বাড়িতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.