ছেলে কোলে নিয়েও আধার সংশোধন করার লাইন

প্রশাসন

জুলফিকার আলি

অাধার কার্ড সংশোধন ও সংযোজন নিয়ে কাঁথি বড় পোস্টঅফিসে কয়েক হাজার মানুষের হুড়োহুড়ি।বৃষ্টিতে ভিজে শিশু কোলে নিয়ে মহিলারাও অাধার কার্ডের কেবলমাত্র দুটো ফর্ম সংগ্রহের জন্য ঘন্টার পর ঘন্টা ঠাঁসাঠাসি করে দাঁড়িয়ে অাছেন।অাধার কার্ড,ভোটার কার্ড,রেশন কার্ড সবই তো প্রনয়ন করেছেন শিক্ষিত বেতনভোগী সরকারী কর্মচারী গণ।তাহলে ৯o% নামের বানান ভূলের দায়িত্ব কার? সরকারের না সাধারন মানুষের? রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকার দেশের সব মানুষকে বিভিন্ন কর্মসূচির নামে রাস্তায় নামিয়ে দিয়েছেন।অাধার কার্ডের ফর্ম এক লপ্তে কেন মাত্র দুটি করে দেওয়া হবে।পরিবারের সকলের নাম সংশোধনের জন্য একসাথে ফর্ম দেওয়া বা নেওয়া হবে না কেন?জেরক্স বা নথী যোগাড়েই সকলের প্রাণ ওষ্ঠাগত। দুর্দশাপন্ন মানুষের পাশে দাঁড়াতে লাইনে দাঁড়ানো লোকজনের জন্যে কথা বলেন প্রাক্তন সহকারী সভাধিপতি মামুদ হোসেন।প্রতিটি পোস্টঅফিস থেকে যাতে অাধার কার্ডের ফর্ম দেওয়া হয় সেই দাবীতে কাঁথি পোস্টাল সুপারিন্টেনডেন্ট কে স্মারকলিপি প্রদান করেন মামুদ হোসেন।সেই সাথে প্রতিকারের দাবী জানিয়ে জেলাশাসকের কাছে অাবেদনপত্র পাঠান মামুদ হোসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.