গিরিশপার্কের পুলিশ গুলিবিদ্ধ মামলায় বেকসুর খালাস ১৩

পুলিশ

গিরিশপার্কের পুলিশ গুলিবিদ্ধ মামলায় বেকসুর খালাস ১৩

মোল্লা জসিমউদ্দিন


বৃহস্পতিবার দুপুরে কলকাতার সিটি সেশন কোর্টের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা বিচারক সোমনাথ মুখোপাধ্যায়ের এজলাসে গিরিশপার্কের পুলিশ গুলিবিদ্ধ মামলায় রায়দান ঘটলো। বিচারক সাক্ষ্যপ্রমাণের অভাবে অভিযুক্ত ১৩ জন কে বেকসুর খালাস রায়দান দেন। বহু চর্চিত এই মামলায় কলকাতার ২১ নং ওয়ার্ডে স্থানীয় প্রভাবশালী নেতা গোপাল তেওয়ারি দীর্ঘদিন জেল হেফাজতে ছিলেন। যিনি রাজ্য তৃনমূলের নেত্রী স্মিতা বকসীর ঘনিষ্ঠ বলয়ের মধ্যে পড়েন বলে প্রকাশ। সাক্ষ্যপ্রমাণের অভাবে বেকসুর খালাস রায়দান হওয়ায় কলকাতা পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।  যদিও পুলিশের একাংশ ভেতর ভেতর চরম অসন্তুষ্ট বলে জানা গেছে।আদালত সুত্রে প্রকাশ, ২০১৫ সালে ১৮ সেপ্টেম্বর কলকাতার পুরসভার ভোটে ২১ নং ওয়ার্ডে গিরিশপার্ক এলাকায় ভোটদানের শেষপর্বে অশান্তি থামাতে গিয়ে জগন্নাথ মন্ডল নামে এক সাব ইনস্পেকটর গুলিবিদ্ধ হন। যিনি বর্তমানে কসবা থানার অতিরিক্ত ওসি হিসাবে কর্মরত রয়েছেন। এই মামলায় ১৯ জন অভিযুক্ত ছিলেন। এদের মধ্যে ১৩ জন কে বিভিন্ন সময়ে গ্রেপ্তার করা হয়। ২৬১ পাতার চার্জশিট পেশ হয়। তাতে ৫৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ চলে। মামলার দ্রুত নিস্পত্তির জন্য সুপ্রিম কোর্ট অবধি যায় তদন্তকারীরা। সুপ্রিম কোর্ট নিম্ন আদালত অর্থাৎ সিটি সেশন কোর্টের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা বিচারকের এজলাস কে ৩০ সেপ্টেম্বর এর মধ্যেই মামলার নিস্পত্তি করতে বলে থাকে। ২০১৭ সালে এই মামলার ট্রায়াল শুরু হয়, যা শেষ হয় চলতি বছরের ১২ সেপ্টেম্বর। এই মামলায় মূল অভিযুক্ত স্থানীয় প্রভাবশালী নেতা গোপাল তেওয়ারি কে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। তারপর ধাপে ধাপে অশোক সাহা, দীপক সিংহ, ইফতিকার আলম, কিশোর পাসোয়ান, শিব রাউত, মনোজ মালি প্রমুখ অভিযুক্ত গ্রেপ্তার হয় পুলিশের হাতে৷ ধৃতেরা শাসকদলের ওই এলাকার ভোট পরিচালনা করতো বলে জানা গেছে। এই মামলায় বরাবরই ৬ জন ফেরার রয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে কলকাতার সিটি সেশন কোর্টের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা বিচারক সোমনাথ মুখোপাধ্যায়ের এজলাসে এই মামলায় রায়দান ঘটলো। যেখানে সাক্ষ্যপ্রমাণের অভাবে নির্দোষ বলে আদেশনামায় বলা হয়েছে। এই মামলায় সরকারি আইনজীবী রয়েছেন তমাল মুখোপাধ্যায়।                                                                                                                              

Leave a Reply

Your email address will not be published.