দুর্ঘটনাগ্রস্ত ছাত্রীর আর্থিক সহযোগিতায় স্বরুপনগর ওসি

পুলিশ

সৈয়দ রেজওয়ানুল হাবিব

বিগত ছয় মাস আগে কাটিয়াহাট গার্লস স্কুলের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী সুদীপা দাস স্কুলে যাওয়ার পথে একটি মারুতি গাড়ি সরাসরি তাকে ধাক্কা মারলে সে রাস্তাতেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে যায় ,বাড়ির লোক খবর পেয়ে স্থানীয় ডাক্তারের কাছে নিয়ে গিয়ে প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা করেন, তবে অজ্ঞতা এবং শেষে দারিদ্রতা সুদিপাকে মৃত্যুর কাছে নিয়ে এসেছে ,সে আজ মৃত্যুর সাথে লড়ছে ৷ইতিমধ্যে কয়েক হাজার টাকা খরচ করেছে বাবা কয়েকদিন আগে সুদিপা কে নিয়ে গিয়েছিল লিগামেন্ট বিশেষজ্ঞের কাছে তিনি রোগীকে দেখে বলে দিয়েছেন তার জরুরিভাবে অপারেশন করাতে হবে তা না হলে ভবিষ্যতে আরও জটিলতর অবস্থা সৃষ্টি হবে ৷এই কথায় ভেঙে পড়েছে সুদিপার বাবা । বিভিন্ন জায়গায় গিয়েও যখন কোন পথ না পেয়ে শেষে সুদিপার বাবা দেখা করে স্বরূপনগর থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক মহাশয় এর নিকট, তিনি আশ্বাস দেন এবং তার প্রশাসন সুদিপার পাশে থাকবেন বলে কথা দিয়েছিলেন ।তিনি পরদিন থানায় আসতে বলেন আজ বিকাল চারটায় স্বরূপনগর থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক সুদীপার বাবার-হাতে মেয়ের চিকিৎসার জন্য ৫৫ হাজার ৪০০ টাকা তুলে দিলেন সাথে সাথে তিনি বা তারা সুদীপা সাথে আছেন বলেও আশ্বাস দেন আজ স্বরূপনগর পুলিশ প্রশাসন আবার প্রমাণ করলো পুলিশ শুধু শাসক নন তারা জনসাধারণের অভিভাবক যাদের বিপদে কেউ নেই পুলিশ তাদের মাথায় ছাতা হয়ে কাজ করেন আমরা এমন একটি প্রশাসন পেয়ে নগরবাসী গর্ববোধ করছি

Leave a Reply

Your email address will not be published.