মরণাপন্ন রোগী কে বাঁচাতে ঈদের নামাজ পড়া হলনা ডাক্তার বাবুর

প্রশাসন

সৈয়দ রেজওয়ানুল হাবিব,

ঈদের নামাজ পড়া হলো না ডাক্তার বাবুর। ডাঃ আকবর হোসেন, মেডিকেল অফিসার,,দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা সভাপতি,, বেঙ্গল এডুকেশান ডেভলপমেনট ফাউন্ডেশন। বরাবরই সুনামের সঙ্গে রোগীদের পরিষেবা দেন । এদিনও ব্যতিক্রম হলো না। ভোর ৩ টা ৩০,ইমার্জেন্সিতে মুমূর্ষু রোগী এসে হাজির। নিতে হলো I.C.U তে। টানা প্রায় ৬ ঘন্টার লড়াই,, বেজে গেলো ৯ টা। ততক্ষণে ঈদের নামাজ শেষ হয়ে গেল। শৈল বালা সামন্ত নামে ঐ ৭০ বছর বয়সী হিন্দু রমনী যখন মৃত্যু সজ্জায়, তখন ডাক্তার আকবর হোসেন বেমালুম ভুলে গেলেন ঈদের নামাজের কথা। একটাই লক্ষ্য তাঁকে বাঁচাতে হবে। অবশেষে অনেকটাই সফল হলেন। পরে ফোনে ডাক্তার বাবু কে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ঈদ উল আযহা হল ত্যাগের অনুষ্ঠান, আর মানুষের জীবন বাঁচানো ফরজ। তাই সেই মুহূর্তে সহকর্মী না থাকায় পুরো দায়িত্ব নিয়ে নিলাম।ডিউটি আওয়ারের দিকে তাকাই নি। বেঙ্গল এডুকেশান ডেভলপমেনট ফাউন্ডেশনের রাজ্য সম্পাদক শিক্ষক সাজাহান মণ্ডল জানান, ডাঃ আকবর হোসেন, নিজের পেশার গণ্ডিকে অতিক্রম করে সমাজকর্মী হিসাবে মানুষের পাশে দাঁড়ানো তাঁর নেশা। এই ঘটনা একদিকে যেমন সম্প্রীতির দৃষ্টান্ত তৈরি হল, অপরদিকে মানবধর্ম পালনে সমর্থ হলেন ডাক্তার বাবু।তিনি আরও বলেন, হৃদয়ের চেয়ে বড়ো কোন মন্দির কাবা নাই। ডায়মন্ড হারবার পঞ্চগ্রাম হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডাঃ আকবর হোসেন সাহেব কে অভিনন্দন ও শুভেচছা,, বেডস পরিবারের পক্ষ থেকে ঈদ মোবারক,কুর্ণিশ হে কর্মবীর।

Leave a Reply

Your email address will not be published.