প্রখর রোদ কে উপেক্ষা করে ঈদের নামাজ মালদায়

প্রশাসন

মানস দাস,

প্রখর রৌদ্রকে উপেক্ষা করে জেলার বিভিন্ন ঈদগাহ ময়দানে নামাজে শামিল হলেন হাজারো মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ।
সোমবার সকাল ৯ টা নাগাদ, মালদা শহরের সুভাষপল্লী ঈদগাহ ময়দানে নামাজ পড়তে সামিল হয়েছিলেন হাজারো মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ। সেখানে পানীয় জল ও অন্যান্য পরিষেবা দিতে ঈদগাহ ময়দান চত্তরে ইংরেজবাজার পৌরসভার উদ্যোগে খোলা হয় একটি স্টল।
সেখানে তদারকি ও মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষকে ঈদের শুভেচ্ছা জানাতে উপস্থিত ছিলেন ইংরেজবাজার পৌরসভার পুরো প্রধান নিহার রঞ্জন ঘোষ, কাউন্সিলর আশিস কুন্ডু, শুভময় বসু সহ অন্যান্য আধিকারিকরা। সোমবার সকাল থেকে পরিষ্কার ছিল আকাশ। বেলা বাড়ার সাথে সাথে প্রখর রৌদ্রের তাপ ও বাড়তে থাকে। প্রখর রৌদ্রকে উপেক্ষা করে হাজার অমুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ একত্রিত হয়ে নামাজ পড়েন। নামাজ শেষে বিশ্ব শান্তির উদ্দেশ্যে তারা দোয়া করেন। পরে সম্প্রীতি বজায় রাখতে হিন্দু মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ একসাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। নামাজিদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন ইংরেজবাজার পৌরসভার পুরো প্রধান নিহার রঞ্জন ঘোষ ও কাউন্সিলররা।
অন্যদিকে নামাজে শামিল হন মহিলারাও। ‘মুসলিম মহিলা জনকল্যাণ কমিটি’র উদ্যোগে মালদা শহরের হায়দারপুর এলাকায় আয়োজন করা হয় মহিলা নামাজের। কমিটির সভানেত্রী সামিমআরা বেগম বলেন, ১৮ বছর ধরে এই নামাজ পাঠ করেন তারা। মালদা জেলায় হায়দারপুরে একমাত্র অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে এই মহিলা নামাজ। শতাধিক মহিলা অংশ নেয় এই মহিলা নামাজ। তিনি বলেন, কাশ্মীরের মানুষের জন্যও তারা দোয়া করেন। নামাজ শেষে একে ওপরকে ঈদের শুভেচ্ছাও জানান তারা।
এদিন কালিয়াচক থানার সুজাপুর নয়মৌজা ঈদগাহ ময়দানেও কয়েক হাজার মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ একত্রিত হয়ে নামাজ পরেন। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন প্রান্তে ঈদগাহ ময়দানে বকরি ঈদের নামাজ পরেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.