বর্ষায় ছাদহীন মাটির বাড়ীতে কষ্টে রয়েছেন বিধবা মহিলা

প্রশাসন

মোল্লা জসিমউদ্দিন

  মঙ্গলকোটের গোপালবেড়া এলাকার ডাঙ্গাপাড়ার বাসিন্দা তাপসী ঘোষ নামে এক বিধবা সরকারি প্রকল্পে আবেদন জানিয়েও ঘর পাননি। এইরূপ অভিযোগ উঠেছে। বছর ষাটের এই মহিলার স্বামী দেবনারায়ন ঘোষ গত দুবছর আগে মারা গেছেন। বিধবা ভাতার আবেদনের পাশাপাশি তিনি বাংলা আবাস যোজনার ঘর পাওয়ার আবেদন জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট পঞ্চায়েতে। তবে পঞ্চায়েতের দায়িত্বপ্রাপ্ত কয়েকজন ছাদহীন মাটির বাড়ীর ছবি করে গেছে, তাও নগদ দুশো টাকা নিয়ে বলে দাবি ওই আবেদনকারীর। যদিও মঙ্গলকোট পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত বিভাগের কর্মাধ্যক্ষ মুন্সি রেজাউল হক জানিয়েছেন – “কোথাও ঘরের ছবি তোলার জন্য টাকা নেওয়া হয়না। কাগজপত্র নিয়ে ব্লক অফিসে এলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব “। বর্ষার সময় ত্রিপল টাঙ্গিয়ে এই বিধবা মহিলা কস্টে দিনরাত কাটাচ্ছেন। অথচ মঙ্গলকোটে দুতলা তিনতলা বাড়ীর মালিকরা বাংলা আবাস যোজনা কিংবা প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা।আবার কোথাও ইন্দিরা আবাস যোজনা কিংবা গীতাঞ্জলি প্রকল্প থেকে ঘরের নামে সরকারি অনুদান নয়ছয় করেছে বলে অভিযোগ। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে ব্লক প্রশাসন।                                                               

Leave a Reply

Your email address will not be published.