দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আত্মঘাতী মালদায়

পুলিশ

আত্মঘাতী ছাত্র

মানস দাস,মালদা : গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী হলো দ্বাদশ শ্রেণীর এক ছাত্র।  বুধবার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে মালদা শহরের ঘোড়াপীর এলাকায় । ইংরেজবাজার থানার পুলিশ খবর পেয়ে ঘোড়াপীর এলাকায় এসে ঝুলন্ত ছাত্রের দেহ উদ্ধার করে। পরে সেটি ময়না তদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজের হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়।  এই ঘটনায় জড়িত ওই স্কুল ছাত্রীর পরিবারের বিরুদ্ধে ছেলেকে আত্মহত্যার প্ররোচন দেওয়ার অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতের পরিবার। পুরো ঘটনাটি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে,  মৃত ছাত্রের নাম অংকুর সাহা (১৪)। সে বিভূতিভূষণ হাইস্কুলে দ্বাদশ শ্রেণীতে পাঠরত ছিল। তার বাড়ি ঘোড়াপীর এলাকায় । পাশের পাড়ার এক ছাত্রীর সঙ্গে গভীর সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল অংকুরের। ওই ছাত্রী একাদশ শ্রেণিতে পাঠরত। একসঙ্গে ওই দুইজন গৃহশিক্ষকের কাছে পড়তো। এক বছর ধরেই তাদের এই ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল। এনিয়ে তীব্র আপত্তি জানিয়েছিলেন ওই ছাত্রীর পরিবার। ওই ছাত্রীর পরিবার বিষয়টি কোনোভাবেই মেনে নেয় নি। অঙ্কুরের সঙ্গে  সম্পর্কের কথা জানতে পারার পর ওই ছাত্রীর মা  লীলা লালা মঙ্গলবার সকালে ওই ছাত্রের বাড়িতে এসে তার বাবা ও মাকে পাড়া-প্রতিবেশীদের সামনে চরম অসম্মান করে । এতেই অপমানিত হয় অংকুরের পরিবার।মৃতের এক ভাই বিশাল সাহা জানিয়েছেন , বাবা ও মায়ের এই অপমান সহ্য করতে পারে নি দাদা অংকুর । তাই ওই মেয়ের মায়ের বিরুদ্ধে সমস্ত  অভিযোগ চিঠিতে লিখে শোবার ঘরে গলায় কাপড় জড়িয়ে আত্মঘাতী হয়েছে সে।ঘটনার তদন্তে নেমেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.