মঙ্গলকোটে গ্রেপ্তার ১১ বিজেপি কর্মী

পুলিশ

 মঙ্গলকোটের উনিয়াতে রাজনৈতিক সংঘর্ষের   ঘটনায় মঙ্গলবার মঙ্গলকোট থানার পুলিস ৬ জন পুরুষ ও ৫ জন মহিলা নিয়ে মোট ১১ জন বিজেপি কর্মীকে গ্রেপ্তার করে। মঙ্গলবার দুপুরে কাটোয়া মহকুমা আদালতে এসিজেম এজলাসে  ধৃত ১১ জন বিজেপি কর্মীকে তোলা হলে বিচারক ধৃত সজল অধিকারি, সঞ্জিত মালিক, ভৃগু বাগদী এবং শান্তি বাগদী নামে চারজনকে তিনদিনের পুলিস হেফাজতের নির্দেশ দেন। বাকিদের ১৪ দিনের বিচারবিভগীয় হেফজতের নির্দেশ দেওয় হয়। তৃণমূলের পালিগ্রাম অঞ্চল সভাপতি রহিম শেখের অবস্থা আগের তুলনায় ভালো। বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে তাঁর চিকিৎস চলছে। মাথায়  আঘাত লাগে তার । তবে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চরম উত্তেজনা ছড়িয়েছে পালিগ্রাম অঞ্চল জুড়ে। জানা গিয়েছে, গত সোমবার বিকেলে উনিয়া গ্রামের রাজনৈতিক সংঘর্ষ ঘটে। এতে বেশকয়েক জন আহত হয়। আহতদের   প্রথমে মঙ্গলকোট ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়।এদিকে এই ঘটনায় গোটা উনিয়া গ্রাম জুড়ে মঙ্গলবার সকাল থেকেই থমথমে চেহারা নেয়। গোটা গ্রামে কার্যত পুরুষশূন্য হয়ে যায়। মঙ্গলকোট থানার পুলিস বাহিনী এলাকায় নতুন করে যাতে উত্তেজনা না ছড়ায় তারজন্য গ্রামে টহল দিচ্ছে বলে প্রকাশ।  

Leave a Reply

Your email address will not be published.