একশোটি গাছ লাগিয়ে নববধূ ঢুকলেন শ্বশুরবাড়িতে

ক্রীড়া সংস্কৃতি

বিয়ের পর ১০০টা গাছ লাগিয়ে শ্বশুরবাড়িতে পা দিল নব বধূ

সেখ সামসুদ্দিনঃ গতকাল বিয়ে ছিল মেমারি মামুদপুরের অজিত ঘোষের পুত্র বেসরকারী সংস্থার কর্মী কৌশিক ঘোষের সাথে বিয়ে হয় মেমারির কানুপুর নিবাসী সীতারাম সরকার এর কন্যা মৌমিতা সরকারের। আজ সকালে বিয়ে করে নব বধু শ্বশুরবাড়িতে পা রাখার আগে ১০০ টি ফল ও ফুলের গাছ লাগিয়ে তবেই শ্বশুরবাড়িতে ঢুকল নববধূ , পাল্লারোডে অভিনব উদ্যোগ নবদম্পতির। পরিবেশের উষ্ণায়ণ নিয়ে চিন্তিত পরিবেশবিদ থেকে যুবসমাজের অনেকেই, কিছু দিন আগে এই ধরণের ভাবনার জন্য উদ্যোগ নেন কৌশিক, কিন্তু সমস্যা হল গাছ তো নয় লাগাবার ইচ্ছা কিন্তু সেই গাছ দেখাশুনা বা বড় করার দায়িত্ব কে নেবে ! এত গাছ বসাবার জায়গা কোথায় ! দারস্ত হয় পাল্লা পল্লীমঙ্গল সমিতির, তারা পার্থেনিয়াম এ ভরা ১টি বিস্তৃর্ণ জায়গা পরিস্কার করে গাছ গুলি বসানোর ব্যবস্থা করে এবং ভবিষ্যতের রক্ষণাবেক্ষণ এর দায়িত্ব নেয় পল্লীমঙ্গল সমিতি। বাদ সাধে বৃষ্টি, তা উপেক্ষা করেই চলে গাছ বসানো, যদিও নব দম্পতি জানান ” চারিদিকে জল সংকট, গাছই পারে পরিবেশকে আগের চেহারায় ফেরাতে, তাই আমরা আজ আমাদের নতুন জীবন শুরুর দিনে আমাদের ভবিষ্যতে প্রজন্মের কথা মাথায় রেখে এই উদ্যোগ নিই। এই বৃষ্টি এই গাছকে সাহায্য করবে। যে খরচটা হয়েছে তা আমাদের বিয়ের মোট খরচের ১শতাংশ। তাই এই উদ্যোগ সবাইই নিতে পারে, পল্লীমঙ্গল সমিতির এই ব্যাপারে সাহায্য অনস্বীকার্য” পল্লীমঙ্গল সমিতির সম্পাদক সন্দীপন সরকার জানান ” এই ধরণের পরিবেশ বাঁচানোর জন্য অভিনব উদ্যোগকে স্বাগত জানাই , আমরা সব সময় সামাজিক কাজে সাথে থাকি, এই ব্যাপারে ওকে সাহায্য করতে পেরে ভালো লাগছে”।

Leave a Reply

Your email address will not be published.