স্ত্রী কে হাতুড়ি করে মেরে গলায় দড়ি স্বামীর

পুলিশ

স্ত্রীকে খুন করে আত্মঘাতী স্বামী

মানস দাস,মালদা : স্ত্রীকে খুন করে আত্মঘাতী স্বামী।কারণ নিয়ে ধন্দে পরিবার সহ গ্রামবাসী।ঘটনাটি ঘটেছে মালদা বামোনগোলা থানার জগদলা গ্রামে। পুলিশ মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।ঘটনার রহস্য ভেদ করতে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে মৃত দম্পতির পরিবারে। পুলিশ সুত্রে জানাগেছে, মৃত স্বামীর নাম মিঠু বৈদ্য(৩০) ও স্ত্রী যোগীতা লোহার(১৯)।জগদলা গ্রামের বাসিন্দা।স্বামী মিঠু বৈদ্য পেশায় কৃষিকার্যের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।স্ত্রী যোগীতা লোহারের বাবার বাড়ি বামোনগোলা থানার গুরুলা গ্রামে।স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, প্রায় এক বছর আগে তাদের বিয়ে হয়।সবকিছু ঠিকই ছিলো।রবিবার রাতে নিজ ঘরে ওই দম্পতির দেহ ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ায় গ্রামে। ঘরের মেঝেতে স্ত্রীর রক্তাক্ত দেহ পরে রয়েছে এবং ঘরের গলায় ফাঁস লাগানো দেহ স্বামীর ঝুলছে।অনুমান,স্বামী স্ত্রীর মাঝে কোনো কারণ নিয়েই ববাদের জেরে এই পরিণতি।স্ত্রীকে হাতুড়ি দিয়ে মাথায় একাধিক আঘাত করে খুনের পর নিজে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। বামোনগোলা থানার পুলিশ ঘর থেকে স্বামী স্ত্রীর মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করে। তবে কি কারণে স্ত্রীকে খুন করে নিজে আত্মঘাতী হলো স্বামী, তা নিয়ে ধোয়াশা সৃষ্টি হয়েছে পরিবারের মধ্যে।ঘটনার তদন্তে নেমেছে বামোনগোলা থানায় পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.