মাটিতে পা রাখা ঝুলন্ত বিজেপি কর্মীর দেহ উদ্ধার

পুলিশ

জুলফিকার আলি,

হলদিয়ায় সুতাহাটায় উদ্ধার বিজেপি কর্মীর ঝুলন্ত দেহ, খুনের আশঙ্কা পরিবার ও বিজেপি প্রাথী সিরধাথ নস্কর এর …

  সাত সকালে বিজেপি কর্মীর  ঝুলন্ত দেহ ঘিরে উত্তেজনা ছড়িয়েছে হলদিয়ার সুতাহাটা থানা এলাকার হাদিয়া গ্রামে। যা খুন করে গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে সন্দেহে এলাকা জুড়ে রীতিমত সমালোচনার ঝড় উঠতে শুরু হয়েছে।

 প্রসঙ্গত, আজ সকালে হাদিয়া গ্রামের বাসিন্দারা একটি অশ্বত্থ গাছে কমল প্রামাণিক (পিতা: নারায়ণ প্রামাণিক) নামে বছর বাইশ এর এক তরতাজা যুবককের মৃতদেহ ঝুলে থাকতে দেখেন। সাথে সাথে এলাকা জুড়ে চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতিতে খবর ছড়িয়ে পড়ে। সাথে সাথে খবর পৌঁছে যায় সুতাহাটা থানায়।পুলিশ কে মৃতদেহ তুলতে বাধা দেই চলে পুলিশ কে ঘিরে বিক্ষোভ 

পরিবার ও বিজেপি প্রাথীর অভিযোগ  যুবকটিকে হত্যা করে কেউ বা কারা অশ্বত্থ গাছে ঝুলিয়ে দিয়ে থাকতে পারে বলে প্রত্যেকেরই আশঙ্কা।কয়েক দিন গ্রামে কালিপুজো চলাকালিন তৃণমূল নেতা অশোক মাইতি ওই বিজেপি কর্মী কমল প্রমাণিক কে বেধড়ক মার ধর কোরে তার পর থেকে এলাকা ছাড়া ছিলো ..ওই বিজেপি কর্মী কে গতকাল ভোর চারটার সময় ওই তৃণমূল নেতা ডেকে নিয়ে গিয়ে মারধর কোরে খুন কোরে গাছে ঝুলিয়ে দিয়েছে বলে অভিজোগ উঠছে ..  ঘটনায় যুবকের গলার ফাঁসে কলাগাছের ছোট লক্ষ্য করা গিয়েছে এবং উল্লেখযোগ্যভাবে যুবকের পা দুটি মাটি স্পর্শ করেই রয়েছিল।

 সুতাহাটা থানা এলাকার দ্বারিবেড়্যা স্কুলমোড়ের কমল প্রামাণিক  বাড়ি .. পেশায় একজন মারুতি ড্রাইভার। এলাকায় তার পরিচিতি এবং যথেষ্ট সুনাম ছিল বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে। তবে কী কারণে এমন ঘটনা ঘটল, এ নিয়ে ধোঁয়াশা দেখছেন কমলের পরিবার । দেহটিকে উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হলদিয়া মহকুমা হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। তবে বিজেপি প্রাথী নস্কর বাবু বলেন তৃণমূল বিজেপি কর্মী দের খুন কোরে এলকায় সন্ত্রাস সৃস্টি কোরে ভোটের যুদ্ধে জয়লাভ করতে চাইছে ..তিনি নির্বাচন কমিশন ও পুলিশ কে বিসয় টি জনিয়েছে দোষী দের গ্রেফতার না করলে বীহতর আন্দোলন এ নামবেন .অন্য দিকে জেলা তৃণমূল এর সাধারণ সম্পাদক কোণীস্ক পান্ডা বলেন তৃণমূল খুনের রাজনীতি তে বিস্বাস কোরে না ..এই খুনের ঘটনায় তৃণমূল কেউ জড়িত নেই ..এটি বিজেপির বিবাদে খুন হলেও হতে পারে ..পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে

Leave a Reply

Your email address will not be published.