পসকো মামলায় সর্বপ্রথম কালনা আদালতে শাস্তিদান ঘটলো

পুলিশ

মোল্লা জসিমউদ্দিন,

বৃহস্পতিবার দুপুরে কালনা মহকুমা আদালতে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা বিচারক (ফুল) শ্রী তপন কুমার মন্ডলের এজলাসে এক পসকো মামলায় রায়দান ঘটলো। মাত্র এক বছরের মধ্যেই এই মামলার দ্রুত রায়দান দিলেন ওই বিচারক। উল্লেখ্য, কালনা মহকুমা আদালতে সর্বপ্রথম এই পস্কো আইনে দোষী সাব্যস্ত হয়ে সাজাদান ঘটলো। আসামি সাহেব ওরফে নবাব ধারা কে দশ বছরের কারাবাসের সাজা দেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা বিচারক (ফুল) শ্রী তপন কুমার মন্ড। পসকোর ৪ নং ধারার পাশাপাশি ৩৪১ এবং ৩৭৬ আইপিসি ধারায় মামলাটি রুজু করা হয়েছিল। গত ১৬/০২/১৮ তারিখে বিকেলে কালনার সিমলন এলাকায় বছর ষোলো এর এক যুবতী টিউশনি থেকে বাড়ী ফিরছিল। সেসময় আসামি জোরপূর্বক ওই যুবতী কে ঠাকুরপুকুর বাগানে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। থানায় লিখিত অভিযোগ জানানোর পর মহকুমা হাসপাতালে মেডিক্যাল টেস্ট হয়। এই মামলায় ৭ জন সাক্ষ্যদান করে। বিচারক এই মামলায় আসামি কে দশবছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন। সরকারি আইনজীবী মলয় পাজা বলেন – কালনা মহকুমা আদালতে সর্বপ্রথম পসকো ধারায় শাস্তিদান ঘটলো। যদিও আসামি পক্ষের আইনজীবী গৌতম দত্ত জানিয়েছেন – মামলার রায়দানের কপি সংগ্রহ করে উচ্চ আদালতে যেতে পারে অভিযুক্তের পরিবার। কালনা মহকুমা আদালতে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা বিচারক (ফুল) তপন কুমার মন্ডল যেভাবে খুন – পস্কো মামলাগুলির দ্রুত রায়দান এবং লোক আদালতে শয়ে শয়ে মামলা ডিসপোজাল করছেন, তাতে আইনজীবী মহলে প্রশংসা উঠে আসছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.