প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

প্রশাসন

সৈয়দ রেজওয়ানুল হাবিব,

পি.এম.এ.ওয়াই এর টাকা আত্মসাৎ, থানায় অভিযোগ-দায়ের৷ছিয়ার বানু – স্বামী মোজাম মন্ডল স্বরূপনগর ব্লকের চারঘাট জিপির গোপালপুর গ্রামে বাড়ী।স্থানীয় বঙ্গীয় গ্রামীন বিকাশ ব্যাংক চারঘাট শাখার অধিন গোপালপুর csp ইউনিট এ তার নিজের নামে একটি হিসাব খুলে ছিলো প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার গৃহ নির্মান প্রকল্পের টাকা পাওয়ায় জন্য৷হিসাব নং-5125020459133 ।যথা নিয়মে টাকা ঐ হিসাব বইতে ঢুকেও ছিলো৷তবে সেই টাকা ছিয়ার বানু ঘরের কাজে লাগাতে পারিনী’৷কি হলো সেই টাকা?গোপালপুর ঐ csp ইউনিট এর দায়িত্বশীল তাহাজ্জদ মণ্ডল নামে এক ব্যাক্তি তার বাড়ী গোপালপুরেই৷সে ঐ হিসাব বইতে টাকা ঢোকার পর তার বাড়ীতে যেয়ে বলেআসে তার হিসাব বইতে আধার লিংক করার জন্য সে যেন একবার ব্যাংকে যায়।যথারীতি ছিয়ারবানু ঐ সি.এস.পি তে হাজির হয়।তার আধার লিংক এর নাম করে ঐ সময় একাধিকবার হাতের টিপ নেওয়ার পর তাকে পাশবইটি রেখে পরের দিন আসতে বলে কারন লিংক সার্পোট নিচ্ছে না বলে জানায়।পরের দিন একইভাবে আঙ্গুলের ছাপ নিয়ে ফেরত পাঠায়।মাস তিন পরে তাকে আবার ব্যাংকে ডেকে পাঠানো হয়।এবারও একই কথা লিংক পাচ্ছেনা।বারবার.আঙ্গুলের ছাপ নেওয়া এবং একই কথা বলে ফিরে আসার পর স্বামীকে বিষয় টি জানায় ছিয়ার বানু ৷পরের দিন চারঘাট ব্যাংক এ গিয়ে এসটেটমেন্ট কপি তুলে জানতে পারে ঐ হিসাব বইতে তিন বারে মোট (১,২০,০০০) এক লক্ষ-কুড়িহাজার টাকা ঢুকেছিলো যা ইতিমধ্যে তোলা হয়ে গেছে।এরপর ছিয়ারবানু নিজ নামের হিসাব বই থেকে টাকা আত্নসাৎ করার দায়ে ঐ সি.এস.পির দায়িত্বশীল কর্মী তাহাজ্জদ মন্ডল এর নামে স্থানীয় স্বরূপনগর থানায় লিখিত ভাবে অভিযোগ দায়ের করে আজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.