পুলিশ

বর্ধমানের ১৫ কোটি সোনালুটের মামলায় এলো সিআইডি

সুরজ প্রসাদ

বর্ধমানে দিনেদুপুরে স্বর্ণঋণ প্রদানকারী সংস্থায় ডাকাতির তদন্তে সি আই ডি। তদন্তে এলেন পাঁচ সদস্যের দল।তারা কলকাতার ভবানীভবন থেকে আজ দুপুরে এসে পৌঁছান বর্ধমান বি সি রোডে ওই সংস্থার অফিসে। সেখানে এসে তারা অকুস্থল ঘুরে দেখেন। বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদ করেন সংস্থার কর্মীদের।গতকাল ডাকাতদের বাধা দিতে গিয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলিবিদ্ধ হন এক টোটোচালক।বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছে।গতকাল দিনে দুপুরে গুলি চলে বর্ধমান শহরের বুকে।।শুক্রবার শহরের বিসি রোডের কংগ্রেস পার্টি অফিসের সামনে প্রকাশ্যে এক ব্যক্তিকে খুব কাছ থেকে গুলি করা হয়।গুলিবিদ্ধ ব্যক্তির নাম হীরামন মণ্ডল।তাঁর বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরের জৌগ্রামে।বর্তমানে তিনি বর্ধমানের সরাইটিকরে থাকেন।পেশায় তিনি টোটো চালক। ভরদুপুরে থানার কাছে গুলিচালনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে শহরজুড়ে। মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ায়।আহত ব্যক্তি জানান বিসি রোডের একটি গোল্ড লোনের সংস্থার তিনি অফিসে গিয়েছিলেন। ওই সময়ে জনাকয়েক যুবক ওই অফিসে ঢোকে।তাদের কাছে রিভলবার ছিল।হীরামন মণ্ডল তা দেখে ফেলেন।এতেই বিপত্তি ঘটে। দুই দুস্কৃতি তাঁকে সংস্থার অফিস থেকে ঠেলে বার করে রাস্তায় নিয়ে যাবার সময় চেষ্টা করে। বাধা দিলে তারা গুলি চালায়।তাঁর পিঠে গুলি লাগে।বর্ধমান থানার পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান দুস্কৃতিরা বাইক নিয়ে এসেছিল।হীরামন মণ্ডলকে গুলি চালানোর পাশাপাশি এক রাউণ্ড ফাঁকায় গুলি চালিয়ে বাইক নিয়ে পালিয়ে যায় তারা। অন্যদিকে সংস্থার একজন কর্মী জানান ; দুপুর বেলা জনাছয়েক দুস্কৃতী মাস্ক পড়ে অফিসে ঢুকে পড়ে। তাদের কাছে রিভলবার ছিল।রিভলবার উঁচিয়ে তারা কর্মীদের ভয় দেখায়।তাদের অফিসের মাঝে এক জায়গায় তাদের নিলডাউন করিয়ে রাখে।এরপর ৩০.৫ ভরি সোনা হাতিয়ে তারা পালিয়ে যায়। সেসময়ে ওই টোটোচালক বাধা দিলে গুলি চালায়।ওই টোটোচালক ওই সংস্থার প্রাক্তন সিকিউরিটি কর্মী বলে জানিয়েছেন। এই ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। যান পুলিশসুপার; আই সি। পুলিশ তদন্ত শুরু করে। আজ তদন্তে এলো সি আই ডি দল।
অন্যদিকে এদিন সকাল থেকে বর্ধমান আরামবাগ রোডের ধারে সগড়াইয়ের একটি খালে পুলিশ তল্লাশি শুরু করে।খালের জল পাম্প দিয়ে তুলে ফেলা হয়।তবে দিনের শেষে কিছু পাওয়া যায় নি ওই খাল থেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *