প্রশাসন

সালানপুরে কল্যা পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে নানান অভিযোগ

ভুরিভুরি অভিযোগ উঠে এল কল্যা পঞ্চায়েতের প্রধান ও উপপ্রধান এর বিরুদ্ধে

কাজল মিত্র

:- সালানপুর ব্লকের অন্তর্গত কল্যা পঞ্চায়েতের মনোহরা নিচু পাড়া গ্রামের মানুষের মধ্যে দিয়ে ভুঁড়ি ভুঁড়ি অভিযোগ উঠে এল কল্যা পঞ্চায়েতের প্রধান ও উপপ্রধানের বিরুদ্ধে। আর সেই অভিযোগ শুনতেই রবিবার গ্রামে পৌঁছালেন বারাবনি বিধায়ক উপাধ্যায় ।এদিন তিনি গ্রামের মানুষের কাছে গিয়ে তাদের অভাব ও অভিযোগের কথা শোনেন যার মধ্যে দিয়ে বেশির ভাগ মানুষ জানালেন যে আমাদের এই মনোহরা গ্রামের জন্যে কল্যা পঞ্চায়েতের প্রধান ও উপপ্রধান শিকান্ত পাতর কোন কাজই করেনা এমনকি গ্রামে ছোট ছোট কাজ থাকলে সেগুলো করেনা।এই গ্রামে রাস্তাঘাট ,নালা নর্দমা, পানীয় জল,বৃদ্ধা পেনশন, শৌচাগার, আবাস যোজনা সহ সকল প্রকল্পের সুবিধা থেকেই বঞ্চিত রয়েছে।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কিছু মানুষ জানালেন কল্যা পঞ্চায়েতে গেলে বেশির ভাগ সময় প্রধান ও উপপ্রধান কে পাওয়ায় যায়না।তাছাড়া এই গ্রামে পঞ্চায়েতের সাথে ঠিকমতো যোগাযোগ না থাকার কারনে উন্নয়নের ছোয়া মাত্র নেই।আর এই সকল অভিযোগ শুনেই বারাবনি বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়
নিজের দায়িত্বে এই মনোহরা গ্রামটি দত্তক নেন ।এই সম্পর্কে বিধায়ক জানান যে তিনি গ্রাম ঘুরে দেখলেন গ্রামের মানুষের বহু অভিযোগ রয়েছে পঞ্চায়েতের প্রধান ও উপপ্রধানের বিরুদ্ধে আর তাই তিনি সকলের কথা ভেবে অসুবিধার কথা শোনেন এবং সেগুলি দ্রুত সমস্যার সমাধানের কথা বলেন তাছাড়া
এই গ্রামের দুই ছাত্রের স্কুলে ভর্তির অসুবিধা হচ্ছিল সেই খবর জানতেই তাদের পড়াশুনার জন্য তৃণমূল কংগ্রেসের তরফ থেকে তাদের পড়াশুনা খরচ বাবদ মাসিক অর্থ খরচ চালানোর ব্যাবস্থা করেন এবং কিছু অভাবী বৃদ্ধা মহিলা রয়েছে যাদের কেও নেই তাদেরও তৃণমূলের পক্ষথেকে মাসে মাসে আর্থিক সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দেন।
এদিন গ্রামের পরিদর্শনে বিধায়কের সাথে ছিলেন জেলাপরিষদের কর্মাধ্যক্ষ মহম্মদ আরমান,সালানপুর ব্লক তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক ভোলা সিং, সালানপুর পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি বিদ্যুৎ মিশ্র, তৃণমূলের নেতা দীনেশ লাল শ্রীবাস্তব সহ অনেকে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *