সেখ সামসুদ্দিন, ১৬ মেঃ প্রতি রবিবারের মতো গতকালও পাড়ার জঙ্গল সাফ করলো হ্যাচারি মাঠ এলাকার নাগরিকরা। এদিন মূলত: এলাকার ড্রেন, জলা জায়গায় মশা মারার জন্য স্প্রে করা হয়। ইতিমধ্যেই এলাকা থেকে পার্থেনিয়াম গাছ এবং আগাছা পরিষ্কার করে ফেলেছে এলাকার মানুষ। হ্যাচারি মাঠ এলাকাটি বৃহত্তর বর্ধমান শহরের সন্নিকটে গড়ে ওটা এক নতুন বসতি। এলাকাটি বৈকুন্ঠপুর-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীনে হলেও উন্নয়নের কাজ করে বর্ধমান উন্নয়ণ সংস্থা। সম্পূর্ণ কাজ এখনো বাকি থাকলেও কিছু রাস্তা কংক্রিট এবং পিচের হয়েছে, হয়েছে আংশিক ড্রেন। এই এলাকার সচেতন নাগরিকরা নিজের এলাকা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে এবং সুন্দর পরিবেশ গড়ে তুলতে নিজেরাই নেমে পড়েন কাজে। প্রতি রবিবার তারা এই কাজ করে আসছেন নিয়মিতভাবেই।
আজকে পাড়ার ড্রেন এবং জলা জায়গায় স্প্রে করার কাজ করে। মশার হাত থেকে কিছুটা হলেও রক্ষা পেতে এবং ডেঙ্গি প্রতিরোধে তারা সামিল হয়। নিজেদের উদ্যোগে একটি হ্যাণ্ড পাম্প মেশিন এবং কীটনাশক কিনে এনে এলাকায় স্প্রে করে। এলাকার বাসিন্দা নিশীথ চ্যাটার্জী জানান, আমরা তো রবিবার এই কাজ করি। এই নতুন পাম্প মেশিন কিনে এনে এলাকায় স্প্রে করা হল। আসলে এটা মাঠের দিকে পাড়া তো, তাই প্রচণ্ড মশার উপদ্রব। কিছুটা হলেও তো কমবে।
আর এক বাসিন্দা গণেশ চন্দ্র দে বলেন, আমরা নিজেরা আনন্দের সাথে এই কাজ করছি। আগে কোনো দিন স্প্রে মেশিন ব্যবহার করিনি। আজ নিজেরাই কাঁধে তুলে নিয়ে স্প্রে করলাম। এই কাজ করে আমরা সকলেই খুব খুশি। তবে পাড়ার বাসিন্দাদের দাবি, এই কাজ পঞ্চায়েত প্রশাসনের করা উচিত। তাদের সীমাবদ্ধতা থাকায় হয়তো সব কাজ করতে পারে না। তাই আমরা নিজেরাই করছি। যদি আমাদের আর কয়েকটা স্প্রে মেশিন এবং কিছু ব্লিচিং বা কীটনাশক প্রশাসন আমাদের দেয় তাহলে খুব উপকৃত হবো। আশা করি প্রশাসন আমাদের পাশে দাঁড়াবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.