পুলিশ

বর্ধমান সদরে চললো গুলি, চাঞ্চল্য শহর জুড়ে

সুরজ প্রসাদ

দিনে দুপুরে গুলি চললো বর্ধমানে।শুক্রবার শহরের বিসি রোডের কংগ্রেস পার্টি অফিসের সামনে প্রকাশ্যে এক ব্যক্তিকে খুব কাছ থেকে গুলি করা হয়।গুলিবিদ্ধ ব্যক্তির নাম হীরামন মণ্ডল।তাঁর বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরের জৌগ্রামে।বর্তমানে তিনি বর্ধমানের সরাইটিকরে থাকেন।পেশায় তিনি টোটো চালক। তিনি জানান বিসি রোডের একটি গোল্ড লোনের সংস্থার অফিসে গিয়েছিলেন। ওই সময়ে দুই যুবক ওই অফিসে ঢোকে।তাদের কাছে রিভলবার ছিল।হীরামন মণ্ডল তা দেখে ফেলেন।এতেই বিপত্তি ঘটে। দুই দুস্কৃতি তাঁকে সংস্থার অফিস থেকে ঠেলে বার করে রাস্তায় নিয়ে যায়। বাধা দিলে তারা গুলি চালায়।তাঁর পিঠে গুলি লাগে।বর্ধমান থানার পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান দুই দুস্কৃতি বাইক নিয়ে এসেছিল।হীরামন মণ্ডলকে গুলি চালানোর পাশাপাশি এক রাউণ্ড ফাঁকায় গুলি চালিয়ে বাইক নিয়ে পালিয়ে যায়।
হীরামন মণ্ডল আগে একটি বেসরকারী গোল্ডলোন সংস্থার অফিসে নিরাপত্তা রক্ষীর কাজ করতেন। ঘটনার খবর পেয়েই বর্ধমান থানার আইসি পিন্টু সাহা যান।ঘটনাটি ঘটে বর্ধমান থানার খুব কাছেই। ঘটনাস্থলে যান জেলা পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখার্জী। তিনি বলেন ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। প্রতিটি রাস্তায় নাকা তল্লাশি করা হচ্ছে। জেলার প্রতিটি থানার আইসি বা ওসিদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যাতে দুস্কৃতিরা পালিয়ে যেতে না পারে।তিনি গোল্ডলোন সংস্থার অফিসেও যান।
গুলিবিদ্ধ হীরামন মণ্ডল জানান দুস্কৃতিরা গোল্ডলোন সংস্থার অফিসে ডাকাতি করার উদ্দেশ্য গিয়েছিল। কিন্তু তিনি তাদের কাছে রিভলবার দেখে ফেলায় তখন তার উপর চড়াও হয় দুস্কৃতিরা।
স্থানীয় বাসিন্দা বা প্রত্যক্ষদর্শী সজল রায় বলেন দুই যুবককে ধরতে গেলে তারা শূন্যে গুলি চালিয়ে বাইকে চেপে পালিয়ে যায়। থানার কাছে এই ঘটনা হওয়ায় চরম আতঙ্কিত স্থানীয় বাসিন্দারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *