পুলিশ

চিত্তরঞ্জনে কারখানার নিলামে যন্ত্রাংশ ক্রেতা খুন

কাজল মিত্র

চিত্তরঞ্জন কারখানার জিএসডি গেট থেকে বেরিয়ে আসার সময় নিলামের মাল সংগ্ৰহ কারী বলরাম সিং নামক এক যুবককে গুলি করে হত্যা করা হল। গুলি তার মাথায় ও বুকে লাগে ।জানা যায় রোজকার মত আজকেও সকাল 9 টার সময় চিত্তরঞ্জন কারখানার জিএসডি গেটের ভিতর অকসেনের মাল নেওয়ার জন্য কারখানায় যায় বলরাম সিং তারপর সেখান থেকে
সে স্কুটি নিয়ে বিকেল 5 টা নাগাদ বাড়ি ফিরছিল আর ঠিক তখনই, একটি কালো পালসার বাইকে চড়ে দুটি হেলমেট তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়। শুক্রবার সন্ধ্যা 5 টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পরে তাকে চিরেকা কস্তুরভা গান্ধী হাসপাতালে আনা হলে সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এই ঘটনারপর আরপিএফ চিত্তরঞ্জন সম্পূর্ণ রূপে সিল করা হয়েছে।পুলিশ হামলা কারীদের সন্ধান করছে। পুলিশ এটিকে ব্যাক্তিগত লড়াই হিসাবে সন্দেহ করছে। ঘটনার পরে বলরাম সিং এর অনেক পরিজনেরা হাসপাতালে জড়ো হয়েছে।এর আগেও এই চিত্তরঞ্জন কারখানায় নিলামের চিত্তরঞ্জনে এই খুনের ঘটনা বেশ কয়েকবার খেলা হয়েছে।
সালানপুর ব্লক তৃণমূলের যুব নেতা মুকুল উপাধ্যায় জানান যে বলরাম সিং তৃণমূলের এক সক্রিয় কর্মী ছিলেন ।সে চিত্তরঞ্জন কারখানায় লোহার যন্ত্রপাতি সহ বিভিন্ন সামগ্রী নিলামের কাজ করত এবং বিভিন্ন ব্যাবসার সাথে জড়িত ছিল, কোন ব্যাবসায়িক শত্রুতার কারণেই মনেহয় তাকে খুন করা হয়েছে ।
তিনি বলেন এই ঘটনার সম্পূর্ণ ভাবে তদন্ত চায় ।তবে চিত্তরঞ্জন রেল নগরীতে এভাবে দিনে দুপুরে খুন হওয়ায় চিত্তরঞ্জন রেল পুলিশ এর উপর প্রশ্ন উঠেছে যে কিভাবে এই রেল শহরে নিরাপত্তা রক্ষা হচ্ছে।স্থানীয় বাসিন্দা মুকেশ চৌধুরী জানান যে বলরাম সিং একবছর আগেই তার বাবা ওমপ্রকাশ সিং কে নিজের কিডনি প্রদান করেন ,সে সমাজ সেবী ছিল সাথে সাথে তৃণমূলের এক সক্রিয় কর্মী ছিল ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *