হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশে পুরুলিয়ায় দম্পতি  ‘বেদখল’ হওয়া  বাড়িতে বহাল

সম্প্রীতি মোল্লা , 
একদা বাড়ি বিক্রেতার আত্মীয়পরিজনের ষড়যন্ত্রে ঘরছাড়া হয়েছিলেন এক দম্পতি। তবে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ এর নির্দেশে অসহায় দম্পতি ফিরে পেলেন নিজ বাড়ি।গত সপ্তাহে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ এর নির্দেশে বেদখল হওয়া সম্পত্তির আপিল পিটিশন মামলায় জয়  পেলো  পুরুলিয়ার এক বৃদ্ধ দম্পত্তি l হাইকোর্টের  নির্দেশে স্থানীয় থানার  পুলিশের নিরপত্তায় বৃদ্ধ দম্পতি কে বাড়ি ফেরানো হয়েছে অনেক আগেই।প্রায় সাতমাস পুলিশ নিরাপত্তা দিচ্ছে এই দম্পতি কে  l এই ঘটনাটি  পুরুলিয়া জেলাত কাশিপুর থানার সোনাথলির মিহি গ্রামেlআদালত সুত্রে প্রকাশ, গত ২০১৭ সালে ওই দম্পতির আত্মীয় নান্দলাল মান্ডি কাছ থেকে ৪০ ডেসিমিল জায়গা সহ একটি গৃহস্থ বাড়ি কেনেন স্থানীয় এলাকার  বৃদ্ধ দম্পতি মাকু হেমব্রম ও তাঁর স্বামী বরকারাম হেমব্রম l  গত ২০২০ সালে অক্টোবর মাসে নন্দদুলালের সম্পর্কের এক আত্মীয় অজিত টুডু সহ তার দলবল ওই বাড়ি সহ ৪০ ডেসিমিল জায়গা টি নিজের দাবি করে জোর পূর্বক বেদখল করে নেয় বলে অভিযোগ। এই সমস্যা নিয়ে স্থানীয় কাশিপুর থানায় জানিয়েছিলেন ওই বৃদ্ধ দম্পতি l বিষয় টি জমিজায়গা সংক্রান্ত হওয়ায় কাশিপুর থানার পুলিশ হস্তক্ষেপ গ্রহণ করেনি বলে প্রকাশ l পরে গোটা বিষয় টি পুরুলিয়া জেলা পুলিশ কে জানানো হয় l অভিযোগ, সেখানেও কোনো কাজ না হওয়ায়, বাধ্য হয়ে গত মে মাসে কলকাতা হাইকোর্টে রিট।পিটিশন দাখিল করেন ওই দম্পতি।  সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্টের তরফে পুলিশি নিরাপত্তা সহ ওই দম্পতি কে নিজ বাড়িতে ফেরানোর নির্দেশিকা জারি করা হয়। এরপর স্থানীয় থানার পুলিশ ওই দম্পতি কে বাড়িতে ফিরিয়ে আনে।কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গেল বেঞ্চের নির্দেশ কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বিপক্ষ ডিভিশন বেঞ্চের দারস্থ হয়েছিলেন। তবে কলকাতা হাইকোর্ট এর ডিভিশন বেঞ্চ আগেকার সিঙ্গেল বেঞ্চের নির্দেশিকা কে বহাল রাখে বলে জানিয়েছেন ওই দম্পতির আইনজীবী সৌগত মিত্র মহাশয়। 

Leave a Reply

Your email address will not be published.