তৃণমূলের দলীয় অফিসের সামনে ফুলের টব ভাঙল দুষ্কৃতি,

জ্যোতি প্রকাশ মুখার্জ্জী,

     গত ১৯ শে জানুয়ারি রাতের অন্ধকারে তৃণমূলের দলীয় অফিসের সামনে রাখা বেশ কয়েকটি ফুলের টব ভাঙল জনৈক দুষ্কৃতি। ঘটনাটি গুসকরা শহরের দলের প্রধান কার্যালয়ের সামনে মধ্যরাতের পর ঘটে। ভোর পাঁচটা নাগাদ বিষয়টি চোখে পড়ে দলের সর্বক্ষণের কর্মী বুদ্ধদেব মুখার্জ্জীর। রাত প্রায় ১১ টা পর্যন্ত দলীয় অফিসে থাকলেও অন্যান্য দিনের মত রাতের দিকে তিনি নিজের বাড়িতে শুতে চলে যান। প্রতিদিনের অভ্যাসমত প্রাতঃভ্রমণে বের হলে বিষয়টি তার নজরে পড়ে। সঙ্গে সঙ্গে তিনি বিষয়টি কাছাকাছি থাকা দলের অপর এক দলীয় কর্মীকে জানান। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দলের অন্যান্য কর্মীরা বিষয়টি জানতে পারে। দলীয় অফিসের সামনে ফুলের টব ভাঙার ঘটনাটি প্রকাশ্যে এলে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। 

      দলীয় অফিসের উল্টোদিকে থাকা একটি ওষুধের দোকানের সি.সি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যাচ্ছে দলীয় অফিসের সামনে রাখা ফুলের টবগুলি মুখ ঢাকা জনৈক দুষ্কৃতি লাথি মেরে ফেলে দিচ্ছে। মুখ ঢাকা থাকার জন্য যদিও দুষ্কৃতিকে চিনতে পারা যাচ্ছেনা। 

        গুসকরা তৃণমূল শহর সভাপতি কুশল মুখার্জ্জী বললেন - অফিসের সামনের অংশের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য আমরা ফুলের টবগুলি রেখেছিলাম। সেগুলি যে কোনো দুষ্কৃতি ভেঙে দিতে পারে সেটা আমাদের কল্পনার বাইরে ছিল। যে সময় ঘটনাটি ঘটেছে তাতে আমরা নিশ্চিত দুষ্কৃতি স্হানীয় বাসিন্দা। কারণ শীতের রাতে বাইরে থেকে কোনো দুষ্কৃতি নিশ্চয়ই ফুলের টব ভাঙতে আসবেনা। ফুটেজ দেখে আপাতত দলীয় কর্মীরাই দুষ্কৃতিকে সনাক্ত করার চেষ্টা করছে। 

       শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জানা যাচ্ছে যে স্হানীয় বিধায়ক অভেদানন্দ থাণ্ডারের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.