পুলিশ

লকডাউনে পুলিশ অফিসারের মানবিকতায় মুগ্ধ ভাতার

আমিরুল ইসলাম

    লকডাউনের  মধ্যে পুলিশের মানবিক ভূমিকা দেখা গেল।।   অসহায় দুই মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তি পেল খাবার।করোনা ভাইরাসের জন্য মানুষ দিশেহারা। করোনাভাইরাস মহামারীর আকার নিয়েছে।সব মিলিয়ে দীর্ঘ প্রায় পাঁচ মাস মানুষ দারুণ কষ্টের মধ্যে রয়েছে।রাজ্য সরকার আজ  গোটা রাজ্যে লকডাউন ঘোষণা করেছেন।যার ফলে সমস্ত দোকানপাট বন্ধ।ভাতারেও লকডাউনের চরম প্রভাব পড়েছে।ভাতার থানার পুলিশের নজরদারি চলছে বিভিন্ন দিকে, লকডাউন এর সমর্থনে।বর্তমানে পুলিশের ভূমিকা দারুন ভাবে বেড়ে গেছে।করোনার যোদ্ধা হিসেবে পুলিশকে বেশি সময় দেখা যাচ্ছে রাস্তায়।কিন্তু নজরদারির পাশাপাশি যে পুলিশ তার মানবিক কর্তব্যের কথা ভুলে যায়নি সেরকম ছবি ধরা পড়লো আমাদের ক্যামেরায়।ভাতারের আলিনগর বাসস্ট্যান্ডে প্রায় শতাধিক দোকান রয়েছে। লকডাউন এর জন্য সমস্ত দোকানপাট বন্ধ। দুজন অসহায় মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তি দোকানের দরজায় দরজায় ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন, কিছু খাবারের জন্য।সেই সময় ভাতার থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত এস আই মোহাম্মদ সফিউদ্দিন তিনি দেখতে পান ওই মানসিক ভারসাম্যহীন দুইজন ব্যক্তি খাবারের জন্য দোকানে দোকানে ঘুরছে। তিনি তৎক্ষণাৎ গাড়িতে থাকা নিজেদের খাবার ( বিস্কিট, কেক, জল ) ওই মানসিক ব্যক্তিদের হাতে তুলে দেন।দায়িত্বপ্রাপ্ত এস আই মোহাম্মদ শফিউদ্দিন বাবুর এই মানবিক চিন্তাভাবনাকে সকল প্রশংসা জানিয়েছেন।ভাতার গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য স্যাম সোরেন ‌ জানান,-“পুলিশ নজরদারির পাশাপাশি সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গিতে ওই অসহায় দুই ব্যক্তির পাশে যেভাবে দাঁড়িয়েছেন সত্যি প্রশংসনীয়।” 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *